পঁচাত্তরোর্ধ্ব সাজাপ্রাপ্তদের আইনি সহায়তা দেবে সুপ্রিমকোর্ট লিগ্যাল এইড

আমাদের নিকলী ডেস্ক ।।

৭৫ বছরের ঊর্ধ্বে বয়স্ক হাজতি ও সাজাপ্রাপ্ত কয়েদীদের আইনি সহায়তা দেবে সুপ্রিমকোর্ট লিগ্যাল এইড।

৭৫ বছরের ঊর্ধ্বে বয়স্ক কারাবন্দিদের সম্পূর্ণ হালনাগাদ তথ্য চেয়ে সুপ্রিমকোর্ট লিগ্যাল এইড অফিস ইতোমধ্যে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগরসহ ৫টি কারাগারে চিঠি পাঠিয়েছে। জাতীয় আইনগত সহায়তা প্রদান সংস্থা সুপ্রিমকোর্ট লিগ্যাল এইড অফিসের কো-অর্ডিনেটর রিপন পৌল স্কু এ কথা জানান। তিনি বলেন, হালনাগাদ তথ্য পাওয়ার পর ৭৫ বছরের ঊর্ধ্বে বয়স্ক সাজাপ্রাপ্ত কয়েদীদের সরকারি আইনি সহায়তা দেবে সুপ্রিমকোর্ট লিগ্যাল এইড। বাসস

গত ৯ জানুয়ারি সহকারী এটর্নি জেনারেল ও সুপ্রিমকোর্ট লিগ্যাল এইড কমিটির সদস্য সচিব টাইটাস হিল্লোল রেমা স্বাক্ষরিত চিঠি ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার, কাশিমপুর পার্ট-১, কাশিমপুর পার্ট-২, কাশিমপুর পার্ট-৩ ও কাশিমপুর পার্ট-৪ কারাগার-এর সিনিয়র জেল সুপার বরাবর পাঠানো হয়। ওই চিঠিতে ৭৫ বছরের ঊর্ধ্বে বয়স্ক কয়েদী ও হাজতিদের আইনি অধিকার প্রাপ্তিতে তথ্যাদি চাওয়া হয়।

চিঠিতে আরো বলা হয়, সুপ্রিমকোর্ট লিগ্যাল এইড কমিটি দেশের উচ্চ আদালতে সরকারি আইনি সেবা নিশ্চিতকরণে কাজ করে চলেছে। সে লক্ষ্যে উল্লেখিত কারাগারগুলোতে বিভিন্ন মামলায় আটক অথবা সাজাপ্রাপ্ত ৭৫ বছরের ঊর্ধ্বে বয়স্ক ব্যক্তিদের আইনি সহায়তা দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছে সুপ্রিমকোর্ট লিগ্যাল এইড অফিস। এ সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য দিতে কারাকর্তৃপক্ষের সার্বিক সহায়তা চাওয়া হয়।

এর আগে বিনা বিচারে দীর্ঘদিন কারাবন্দীদের আইনি সহায়তা দেয়া শুরু করে সুপ্রিমকোর্ট লিগ্যাল এইড অফিস। সুপ্রিমকোর্ট লিগ্যাল এইড অফিস মামলায় সহায়তার পাশাপাশি অসচ্ছল বিচারপ্রার্থীকে আইনি পরামর্শ দিচ্ছে। সুপ্রিমকোর্ট লিগ্যাল এইড অফিসের সমন্বয়কারী রিপন পল স্কু বার্তা সংস্থাকে জানান, ইতোমধ্যে প্রায় দেড় হাজার জনকে আইনগত পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, সরকারি খরচে অসচ্ছল বিচারপ্রার্থীদের এ আইনি সেবা প্রদান অব্যাহত রয়েছে। দিনে দিনে এ কার্যক্রম আরো জোরদার করা হচ্ছে। তিনি বলেন, ২০১৫ সালের ৮ সেপ্টেম্বর সুপ্রিমকোর্ট লিগ্যাল এইড কমিটির অফিস উদ্বোধন করা হয়। গত বছরের মার্চ মাস পর্যন্ত সুপ্রিমকোর্ট লিগ্যাল এইড অফিস অস্বচ্ছল বিচারপ্রার্থীর ৫৫৫টি আবেদন গ্রহণ করে। এর মধ্যে ৪৯৭টি মামলায় লিগ্যাল এইড অফিস থেকে আইনজীবী নিয়োগ দেয়া হয়। ২৯৮টি মামলা নিস্পত্তি হয়েছে।

বর্তমান সরকার আর্থিকভাবে অস্বচ্ছল, সহায় সম্বলহীন বিচারপ্রার্থী জনগণকে সরকারি খরচে আইনি সহায়তা প্রদানের লক্ষ্যে “আইনগত সহায়তা প্রদান আইন” প্রণয়ন করে। এর ব্যাপ্তি সুপ্রিমকোর্ট, দেশের সকল আদালত, জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায় পর্যন্ত নেয়া হয়েছে।

Similar Posts

error: Content is protected !!