লাহিড়ীপাড়ায় জমির কলাগাছ কর্তন, এলাকায় উত্তেজনা

মহাস্থান (বগুড়া) প্রতিনিধি ।।

বগুড়া সদরের লাহিড়ীপাড়ায়, এক কৃষকের জমির কলাগাছ কেটে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা। বগুড়া সদর থানায় এ বিষয়ে একটি সাধারণ ডায়েরি হয়েছে। গ্রাম্য সালিশে মিমাংসা না হওয়ায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

সরেজমিনে গিয়ে ও সদর থানায় সাধারণ ডায়েরি সূত্রে জানা গেছে, বগুড়া সদর উপজেলার লাহিরীপাড়া ইউনিয়নের বুজরুকমাঝিড়া গ্রামের বজলার রহমানের পুত্র হিরা মিয়া স্থানীয় রোকনগাড়ী গ্রামের ঈদগাহ মাঠসংলগ্ন তার ২০ শতাংশ জমিতে অনুপম কলার চাষ করেন। এলাকার লোকজনের অনেক দিনের দাবি তার জমির পাশ দিয়ে ঈদগাহ মাঠে যাতায়াতের রাস্তা প্রশস্ত করার।

রোববার (১৫ জুলাই ২০১৮) দিবাগত রাতে দুর্বৃত্তরা তার জমিতে লাগানো প্রায় ১২০টি ফলন্ত কলাগাছ কর্তন করায় আনুমানিক ৫০-৬০ হাজার টাকা ক্ষতিসাধন হয়েছে। এ ঘটনায় হিরা মিয়া বাদী হয়ে বগুড়া সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন। বগুড়া সদর থানা জিডি নং ৩৭৯।

ঘটনাটি স্থানীয় পর্যায়ে মীমাংসার উদ্দেশে মঙ্গলবার বিকালে রোকনগাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে আলহাজ্ব আব্দুল আজিজের সভাপতিত্বে গ্রাম্য সালিশ অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সালিশে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুস ছামাদ, সাবেক ইউপি সদস্য নুরুল হোসেন, আলহাজ্ব কামাল উদ্দীন, আলহাজ্ব জিন্নত আলী, ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম বাবু, আওয়ামী লীগ নেতা আইয়ুব হোসেন, বিএনপি নেতা আব্দুল হামিদ টুকু, সাইদুল ইসলাম, টুকু মিয়া, সহিদুল ইসলামসহ তিন গ্রামের শতাধিক মানুষ।

সালিশ সূত্রে জানা যায়, একটি মজলিশের দাওয়াত খাওয়াকে কেন্দ্র করে এলাকায় দুই গ্রুপের মধ্যে মনোমালিন্যের কারণে ইতিমধ্যে ঈদগাহ মাঠ ভিন্ন করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। অনেক আলোচনার পরেও কোনো মীমাংশা না হওয়ায় বর্তমানে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। যেকোন সময় আরো দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।