মাহমুদুর রহমানের হামলার নিন্দা ও প্রতিবাদ হেফাজতের

মাহমুদ আল আজাদ, হাটহাজারী প্রতিনিধি ।।

গত রোববার (২২ জুলাই ২০১৮) কুষ্টিয়ার আদালত চত্বরে আমার দেশ পত্রিকার মজলুম সম্পাদক, সাহসী কলম সৈনিক, দেশপ্রেমিক মাহমুদুর রহমানকে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা দীর্ঘক্ষণ আদালতের ভিতরে অবরুদ্ধ করে রাখার পর আদালত থেকে বের হলে পুলিশের সামনেই নগ্ন হামলা চালিয়ে গুরুতর আহত করার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী।

রোববার বিকেলে বিবৃতিতে তিনি বলেন, আদালত চত্বরে পুলিশের সামনে আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে সরকারদলীয় ছাত্রসংগঠনের সশস্ত্র এই মহড়া দেখে নাগরিক সমাজ উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠিত। একজন দেশপ্রেমিক নাগরিকের ওপর এমন বর্বরোচিত হামলা কোনো অবস্থায় মেনে নেয়া যায় না। এই হামলা প্রমাণ করে দেশে কোনো নাগরিকের জীবনের নিরাপত্তা নেই।

রাষ্ট্রীয় আইন প্রয়োগকারী বাহিনী থাকার পর ছাত্রলীগের সশস্ত্র মহড়া দিয়ে ত্রাসের রাজত্ব করা সরকারের জন্য কল্যাণকর নয়। আদালত অঙ্গনে, পুলিশ প্রহরায়, মাহমুদুর রহমান রক্তাক্ত হলো। নাগরিক স্বাধীনতা, মুক্তিযোদ্ধাদের ‘সুশাসন ও মৌলিক মানবাধিকার বলতে আর কিছুই থাকল না।

আজিজুল হক ইসলামাবাদী বলেন, মাহমুদুর রহমান একজন ঈমানদার, দেশপ্রেমিক বীর, জাতির সাহসী সন্তান। তার ওপর নগ্ন হামলা ফ্যাসিবাদী শাসনের জ্বলন্ত দৃষ্টান্ত। মহান আল্লাহর মেহেরবানিতে তিনি জীবন রক্ষা পেয়েছেন। “আমি একাই দেশের জন্য প্রাণ দেবো। ইসলামের জন্য প্রাণ দেবো” তার এই ঈমানদীপ্ত সাহসী উচ্চারণে দেশপ্রেমিক নাগরিকরা উজ্জীবিত।

তিনি বলেন, মাহমুদুর রহমানের ওপর বর্বরোচিত হামলার নিন্দা জানানোর ভাষা আমাদের জানা নেই। আমরা প্রশাসনের নিকট হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি। এবং মহান আল্লাহর দরবারে এই জুলুমের হাত থেকে দেশ এবং এদেশের জনগণকে রক্ষা করার জন্য কায়মনোবাক্যে ফরিয়াদ করছি।