উজান ভাটি বাসে ছাত্রদের হামলায় চার ঘণ্টা সড়ক অবরোধ

আমাদের নিকলী ডেস্ক ।।

কিশোরগঞ্জে ‘উজান ভাটি’ পরিবহনের একটি বাসের চালক ও হেলপারকে ছাত্রদের মারধরের প্রতিবাদে শ্রমিকরা চার ঘণ্টা সড়ক অবরোধ করে রাখেন। শনিবার (২৮ জুলাই ২০১৮) দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে বিকাল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত কিশোরগঞ্জ-করিমগঞ্জ সড়কে একরামপুর থেকে দুই কিলোমিটার এলাকায় এলোপাতাড়ি বাস দাঁড় করিয়ে রেখে তারা সড়ক অবরোধ করে রাখেন।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পরে বিকাল সাড়ে চারটার দিকে অবরোধ তুলে নেয়া হয়।

জেলা মোটরযান শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি হাবিবুর রহমান জানিয়েছেন, করিমগঞ্জের চামড়া বন্দর থেকে ঢাকাগামী ‘উজান ভাটি’ সিটিং সার্ভিস বাসে শনিবার সকাল ১১টার দিকে শহরের আজিমউদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের এক ছাত্র করিমগঞ্জের সাকুয়া এলাকা থেকে আসন ছাড়া উঠে গেলে বাসের স্টাফদের সাথে তার কথা কাটাকাটি হয়। ছাত্রটি স্কুলের ছাত্রদেরকে মোবাইল ফোনে বিষয়টি জানালে অন্তত ২৫ জন ছাত্র শহরতলির সতাল এলাকায় গিয়ে বাসে হামলা চালিয়ে চালক সোহেল (২৮) ও হেলপার জুয়েলকে (৩২) মারধর করে। তাদেরকে আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ঘটনার প্রতিবাদে পরিবহন শ্রমিকরা কিশোরগঞ্জ-করিমগঞ্জ সড়কের দুই কিলোমিটার এলাকায় এলোপাতাড়ি বাস দাঁড় করিয়ে রেখে প্রায় চার ঘণ্টা অবরোধ করে রাখেন। এ সময় কিশোরগঞ্জ-করিমগঞ্জ সড়কে সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায় এবং অসংখ্য যানবাহন আটকা পড়ে।

সূত্র : কিশোরগঞ্জে বাসে ছাত্রদের হামলায় চার ঘন্টা সড়ক অবরোধ  [কিশোরগঞ্জ নিউজ, ২৮ জুলাই ২০১৮]