কিশোরগঞ্জের মঞ্চ মাতালো নিকলী নাট্যদল

বিশেষ প্রতিনিধি ।।

“সুস্থ সংস্কৃতি ও নাট্যচর্চা হোক সমাজ পরিবর্তনের প্রধান হাতিয়ার” স্লোগান নিয়ে এগিয়ে চলেছে এ সময়ে নিকলীর অন্যতম সাংস্কৃতিক সংগঠন “নিকলী নাট্যদল”। নানান প্রতিকূলতা মাড়িয়ে একের পর এক নাটক মঞ্চস্থ করছেন তারা। গত ৯ ও ১০ নভেম্বর দুই দিনব্যাপী মানবাধিকার নাট্য পরিষদ (মানাপ), কিশোরগঞ্জ শাখার উদ্যোগে অনুষ্ঠিত নাট্যোৎসবে নিকলী নাট্যদলের সর্বশেষ মঞ্চায়ন “অবাক জলপান”। আয়োজক, অতিথিবৃন্দ ও দর্শকের ভূয়সী প্রশংসায় ভেসেছে সুকুমার রায় রচিত ও নিকলীর কৃতিমুখ শেখ মোবারক হোসাইন সাদীর নির্দেশনায় “অবাক জলপান”।

আয়োজনের প্রথম দিন ৯ নভেম্বর পরিবেশিত হওয়া নিকলী নাট্যদলের “অবাক জলপান”-এর পাশাপাশি আরো তিনটি নাটক ছিল দুইদিনের এই নাট্যোৎসবে। সবচেয়ে আলোকিত ও প্রশংসিত নাটক ছিল “অবাক জলপান”। নাটক শেষে অনেক গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ গ্রিনরুমে ঢুকে প্রসংশা ও নিকলী নাট্যদলের কর্মীদের উৎসাহ যোগান। এমন নাটক আরো হওয়া দরকার বলে তাঁরা মন্তব্য করেন।

১৫তম কিশোরগঞ্জ মানবাধিকার নাট্য উৎসব উদ্বোধন করেন আশির দশকে নাট্যাঙ্গন কাঁপানো মঞ্চাভিনেতা, নির্দেশক, খ্যাতিমান মুকাভিনেতা, কিশোরগঞ্জের নাট্যপ্রাণ মানুষ আলজুস ভূঞা।

প্রধান অতিথি ছিলেন কিশোরগঞ্জ জেলা প্রশাসক মো: সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপ-সচিব ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) তরফদার মো: আক্তার জামীল, ব্যবসায়ী ও সমাজসেবক বাদল রহমান, কিশোরগঞ্জ সম্মিলিত নাগরিক ফোরাম আহ্বায়ক এনায়েত করিম অমি এবং কিশোরগঞ্জের নারীনেত্রী বিলকিস বেগম।

নাট্যোৎসবের উদ্বোধনী দিন সন্ধ্যা সাড়ে ৫টায় একটি র‌্যালি শহরের কিছু অংশ প্রদক্ষিণ শেষে অনুষ্ঠানস্থল আখড়াবাজার পরম চত্বরে এসে থামে। ৬টায় শুরু হয় আলোচনা পর্ব। আলোচনায় অতিথিবৃন্দ মানাপের আয়োজনের প্রশংসা করেন। প্রতিবছর নিয়মিত এমন আয়োজন হলে কিশোরগঞ্জ তথা সারা দেশের নাটক আরো এগিয়ে যাবে বলে তাঁরা অভিমত ব্যক্ত করেন।

মানাপের আলো ঝলমলে আয়োজনে ৩০ মিনিট দৈর্ঘ্যের “অবাক জলপান” নাটকটি নিয়ে রাত ৭টায় মঞ্চে ওঠে নিকলী নাট্যদলের কর্মীরা। দলে ছিলেন ৭ জন মেয়ে ও ৩ জন ছেলেসদস্য।

“মানুষ তাই, অধিকার চাই” স্লোগান উচ্চারণের মাধ্যমে শনিবার (১০ নভেম্বর ২০১৮) পর্দা নামলো দু’দিনব্যাপী ১৫তম কিশোরগঞ্জ মানবাধিকার নাট্য উৎসবের। সমাপনী দিনে প্রবীণ নাট্যশিল্পী বাবু মলয় কুমারের হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি এডিসি (শিক্ষা ও আইসিটি) মো: আব্দুল্লাহ আল মাসুদ।