সমুদ্র তলের রেলপথে ভারত থেকে দুবাই!

আমাদের নিকলী ডেস্ক ।।

ভারতে কিছুদিনের মধ্যে ছুটবে ইঞ্জিনবিহীন ট্রেন। এমন খবর আগেই প্রকাশ্যে এসেছে। তবে এবারের খবর আরও চমকপ্রদ। পানির তলা দিয়েই ছুটবে ট্রেন। তাও আবার মুম্বাই থেকে সুদূর আরব আমিরশাহী পর্যন্ত। এমনই একটি পরিকল্পনা করেছে দুবাইয়ের একটি সংস্থা।

সংযুক্ত আরব আমিরশাহীর জুজাইরা থেকে মুম্বাই পর্যন্ত বিস্তীর্ণ হবে সেই রেললাইন। অদূর ভবিষ্যতে সেই রেললাইন ধরেই দুই দেশের পর্যটকরা যাতায়াত করতে পারবেন। এই পথে দুই দেশ পণ্য আদান-প্রদান করতে পারে বলেও জানা গেছে।

দুবাইয়ে ফুজাইরা থেকে মুম্বাইয়ের দূরত্ব ২০০০ কিলোমিটার। গোটা পথটাই হবে সমুদ্রের নিচে দিয়ে। তবে লাইনটি হবে ভাসমান। ওই রাস্তায় চালানো হবে পণ্যবাহী ট্রেনও। একইসঙ্গে বসানো হবে তেলের পাইপ লাইনও। দুবাইয়ের ন্যাশনাল অ্যাডভাইজর ব্যুরো লিমিটেড এই লাইন তৈরির পরিকল্পনা করেছে।

সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা আলশেখি জানিয়েছেন, গোটা ব্যাপারটাই এখনও পরিকল্পনার পর্যায়ে রয়েছে। দুবাইয়ের ফুজাইরার সঙ্গে মুম্বাইকে রেলপথে জুড়ে দেয়ার পরিকল্পনা করা হয়েছে। এর ফলে ভারত ও সংযুক্ত আরব আমিরশাহীর মধ্যে দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য অনেকটাই বাড়িয়ে ফেলা সম্ভব হবে। ফুজাইরা থেকে তেল পাঠানো হবে মুম্বাইতে। অন্যদিকে, নর্মদার অতিরিক্ত পানি নিয়ে আসা হবে দুবাইয়ে। ওই পথটি বিভিন্ন সংস্থাও তাদের বাণিজ্যের জন্য ব্যবহার করতে পারবে।

আলশেখি সংবাদমাধ্যমে আরও জানিয়েছেন, এই ধরনের একটি কাজে হাত দেয়ার আগে অনেকগুলো বিষয় মাথায় রাখতে হচ্ছে। প্রথমেই সমীক্ষা করে দেখতে হবে এই ধরনের কোনও রেললাইন পাতা যাবে কিনা। গোটা পথের দূরত্ব হবে ২০০০ কিলোমিটার।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি নিনগোবো-সাংহাই ও জেসুহান সমুদ্রের নিচে দিয়ে রেলপথে জুড়ে দেয়ার ব্যাপারে সবুজ সংকেত দিয়েছে চীন সরকার।

সূত্র : কলকাতা ২৪x৭, ১ ডিসেম্বর ২০১৮