ধামইরহাটে আলতাদিঘীতে দর্শনার্থীকে জিম্মি করে চাঁদা দাবি, আটক ৩

ধামইরহাট (নওগাঁ) প্রতিনিধি ।।

নওগাঁর ধামইরহাটে পহেলা বৈশাখ উপলক্ষ্যে আলতাদিঘী জাতীয় উদ্যানের দর্শনার্থীদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে চাঁদা আদায়ের অভিযোগে ৩ যুবককে আটক করেছে পুলিশ।

মামলার অভিযোগের বরাত দিয়ে ওসি জাকিরুল ইসলাম জানান, বর্ষবরণের দিন ১৪ এপ্রিল দুপুর ২টায় পাঁচবিবি উপজেলার সালাইপুর গ্রামের বদিউজ্জামানের ছেলে হারুনুর রশিদ (২২) ধামইরহাট উপজেলার আলতাদিঘী দেখতে আসে। এ সময় দৌলতপুর গ্রামের দেলোয়ার হোসেনের ছেলে আবু কাহার সিদ্দিক (২২), অমরপুর গ্রামের আব্দুস সাত্তারের ছেলে সাখাওয়াত হোসেন (২১) ও জয়নাল রবিদাসের ছেলে দূর্গা রবিদাস (২০) দর্শনার্থী হারুনুর রশিদকে ধারালো অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে, তার মোটরসাইকেল কেড়ে নিয়ে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে।

জীবন বাঁচাতে ভিকটিম কিছু টাকা আত্মীয়কে ফোন করে বিকাশের মাধ্যমে চাঁদাবাজদের দেয়, ভিকটিম ও তার লোকজন কৌশলে থানা পুলিশকে খবর দিলে দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে মোটরসাইকেল, ভিকটিমসহ চাঁদাবাজ ও আলতাদিঘী এলাকার সন্ত্রাসী আবু কাহার, সাখাওয়াত ও দূর্গা রবিদাসকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। রাতে হারুনুর রশিদ বাদী হয়ে ধামইরহাট থানায় একটি মামলা দায়ের করে। মামলা নং-১০। আটককৃত সোমবার নওগাঁ কোর্ট হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। আটককৃতরা বিভিন্ন শিক্ষার্থী- নারী দর্শনার্থীদের বিভিন্ন সময় বেকায়দায় ফেলে ব্ল্যাক মেইলের চেষ্টা করতো বলে স্থানীয়রা জানান।

এলাকাবাসীর দাবি ধামইরহাট উপজেলার ঐতিহ্যবাহী এই দর্শনীয় স্থানটিতে আসার পর্যটক ও দর্শনার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিতকল্পে এমন চাঁদাবাজ ও সন্ত্রাসীদের আইনের কঠোর প্রয়োগ করে দৃষ্টান্ত শাস্তি নিশ্চিত করা হোক।