হাটহাজারীতে পুকুরে ডুবে শিশুর মৃত্যু!

মাহমুদ আল আজাদ, হাটহাজারী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি ।।

হাটহাজারীর মেখল গ্রামে তানজির (৭) নামে এক শিশুর পুকুরে ডুবে মৃত্যু হয়েছে। ১৭ এপ্রিল বুধবার দুপুর ১২টার দিকে মেখল ফকিরহাট এলাকার হাজী আমির হোসেনের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, পুকুরে ডুবে নিহত হওয়া তানজির পৌর সদর মো. একরাম হোসেনের পুত্র। বাড়ির উঠানে খেলাধুলা করতে গিয়ে কোন এক সময় পাশের পুকুরে পড়ে যায়। এদিকে শিশুর কোনো সাড়া না পেয়ে খুঁজতে খুঁজতে পাশের পুকুরের দিকে গেলে শিশু তানজিরকে পানিতে ভাসতে দেখে চিৎকার দেয়। প্রতিবেশিরা ছুটে এসে শিশু তানজিরকে উদ্ধার করে প্রাইভেট হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। স্থানীয় আলিফ হসপিটালের কর্তব্যরত ডাক্তার ফাহিম মৃত ঘোষণা করার পর বাড়িতে নিয়ে আসার কিছুক্ষণ পরে তার নাক দিয়ে ফেনা ও শ্বাস প্রশ্বাস বের হতে দেখে তাৎক্ষণিক শিশুটির পরিবার তাকে চমেক হাসপাতালে নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে আলিফ হসপিটালের পরিচালক মো. নাজিম উদ্দীনের কাছে জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, স্কুলের মিটিংয়ে আছি পরে জানাচ্ছি। পরে হসপিটালে জরুরি বিভাগের নাম্বারে ফোন করে ডাক্তার ফাহিমের সাথে কথা বলতে চাইলে তিনি ব্যস্ত আছেন বলে জানান তুহিন নামে এক ব্যক্তি। পানিতে পড়া তানজির নামে কোনো শিশুকে ডাক্তার ফাহিম আজ মৃত ঘোষণা করেছেন কিনা জানতে চাইলে সে তুহিন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন।

পুকুরের পানিতে পরা শিশু তানজিরের অবস্থা সম্পর্কে জানতে চাইলে চমেক পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই আলাউদ্দীন জানান, শিশুটির অবস্থা তেমন ভাল ছিল না। তাকে আনার পরেই আইসিইউতে নেয়া হয়েছে। কয়েকটি পরীক্ষাও করা হয়েছে। অবশেষে তাকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি।

এদিকে শিশু তানজিরকে হারিয়ে পিতা-মাতার আহাজারিত ভারী হয়ে উঠেছে সেখানকার পরিবেশ। তানজিরের মৃত্যুতে ওই এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে বলে জানা গেছে।