শপথ নিলেন নিকলী উপজেলা চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যানগণ

বিশেষ প্রতিনিধি ।।
ছবি : তৌহিদুজ্জামান তুষার

পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে গত ২৪ মার্চ অনুষ্ঠিত নির্বাচনে বিজয়ী কিশোরগঞ্জ জেলার নিকলী উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানগণ শপথ গ্রহণ করেছেন। আজ শনিবার (২৭ এপ্রিল ২০১৯) ঢাকা বিভাগীয় কমিশনারের সম্মেলন কক্ষে এই শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

সকাল ১০টায় প্রথম দফায় শপথ গ্রহণ করেন নবনির্বাচিত নিকলী উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আলহাজ্ব মো. ইসহাক ভূইয়ার পুত্র স্বতন্ত্র প্রার্থী আহসান মো. রুহুল কুদ্দুস ভূঞা জনি। দ্বিতীয় দফায় বেলা ১১টায় শপথ নেন মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রেজিয়া আক্তার। দুপুর ১২টায় তৃতীয় দফায় শপথ নেন নবনির্বাচিত ভাইস চেয়ারম্যান রিয়াজুল হক আয়াজ নেতা।

শপথ বাক্য পাঠ করান ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার কে এম আলী আজম। এ সময় নবনির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের স্বাগত জানিয়ে তিনি বলেন, “শপথ নেয়ার পর থেকে আপনারা সরকারের অংশ হয়ে গেলেন। এখন থেকে আপনাদের সরকারের রীতি-নীতি মেনে দায়িত্ব পালন করতে হবে। জনগণ যে প্রত্যাশা নিয়ে আপনাদের নির্বাচিত করেছেন, তা পূরণে কাজ করে যেতে হবে। জনগণকে সর্বোচ্চ সেবাদান নিশ্চিত করতে হবে।” এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন দুর্যোগ ও ত্রাণমন্ত্রী ড. আনামুর রহমান।

শপথ গ্রহণের পর নিকলী উপজেলার নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আহসান মো. রুহুল কুদ্দুস ভূঞা জনি বলেন, “আল্লাহ্ তায়ালার অশেষ রহমত এবং নিকলীবাসীর দোয়া ও ভালবাসা নিয়ে আজ ঢাকা বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ে নিকলী উপজেলার চেয়ারম্যান হিসেবে শপথ গ্রহণ করলাম। আমার বাবা আলহাজ্ব মো. ইসহাক ভূইয়া আপনাদের ভোটে উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে অতীতে সততার সাথে দায়িত্ব পালন করেছেন। বাবার আদর্শে সততা ও নিষ্ঠার সাথে আপনাদের সেবায় নিজেকে যেন নিয়োজিত করতে পারি এজন্য নিকলীবাসীর দোয়া ও সমর্থন প্রত্যাশা করি।”

শপথ শেষে উপজেলার নবনির্বাচিত ভাইস চেয়ারম্যান রিয়াজুল হক আয়াজ বলেন, “ভোটের মাধ্যমে আমাকে নির্বাচিত করায় উপজেলাবাসীকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা। আমার আগামী পুরো দায়িত্বকাল যেন নিরলসভাবে আপনাদের সেবা করতে পারি সেজন্য দোয়া করবেন।”

উল্লেখ্য, একই দিন কিশোরগঞ্জ জেলার ১০টি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানগণ শপথ নিয়েছেন। উপজেলাগুলো হচ্ছে, কিশোরগঞ্জ সদর, ইটনা, মিঠামইন, অষ্টগ্রাম, নিকলী, কুলিয়ারচর, হোসেনপুর, পাকুন্দিয়া, তাড়াইল ও করিমগঞ্জ।