ধামইরহাটে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মারপিট জখম-২, খড়ের গাদায় আগুন

ধামইরহাট (নওগাঁ) প্রতিনিধি ।।

নওগাঁর ধামইরহাটে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মারপিটের ঘটনায় ২ জন জখম ও খড়ের গাড়ায় অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে পৌছে পুলিশ ও স্থানীয়দের চেষ্টায় খড়ের গাদার আগুন নেভানো হয়েছে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীরা থানায় মামলা করলে পুলিশ রাতেই ৪ জনকে আটক করেছে।

স্থানীয় জনপ্রতিনিধি সূত্রে জানা যায়, ২২ মে দিবাগত রাতে উপজেলার জাহানপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ কোকিল গ্রামে আদিবাসী গনেশ মাহাতো ও তার পরিবারের লোকজন নিয়ে বাড়ির ধান মাড়াইয়ের কাজ করছিল। এমন সময় প্রতিবেশী বাবুল হোসেন গং ঠাট্টা-মশকরার এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের মধ্যে মারামারি সৃষ্টি হলে গণেশ মাহাতো ও তার ভাই দিনেশ মাহাতো এবং মাহমুদ জখম হয়।

মারপিট চলাকালে খড়ের গাদায় আগুন জ্বলে উঠলে থানা পুলিশ স্থানীয়দের সহযোগিতায় আগুন নিভানোর চেষ্টা করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। উভয় পক্ষ হাসপাতালে ভর্তি হলে গণেশ ও দিনেশকে শমিজেক হাসপাতালে রেফার্ড করে। এ ব্যাপারে গণেশ মাহাতোর ছেলে বিপ্লব মাহাতো বাড়ি হয়ে ধামইরহাট থানায় একটি মামলা দায়ের করলে হাসপাতাল থেকে এজাহারভুক্ত আসামি মাহমুদ, অপর আসামি বাবুল হোসেন, মামজুল ও হাফিজুলসহ ৪ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। ঘটনাস্থল পত্নীতলা সার্কেলের ভারপ্রাপ্ত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আশরাফুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী অফিসার গনপতি রায় ও ধামইরহাট থানার ওসি জাকিরুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

ধামইরহাট থানার ওসি জাকিরুল ইসলাম বলেন, ঘটনার বিষয়ে থানায় নিয়মিত মামলা রুজু ও ৪ জন আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে, প্রকৃত ঘটনা উদঘাটনের জন্য তদন্ত চলমান আছে। এ দিকে বিবাদী পক্ষের লোকজন আঞ্জুয়ারা বেগম বলেন, আদিবাসীরা আমাদের লোকজনকেই আগে মারপিট করে এবং তারাই অগ্নিসংযোগ করে আমাদের ফাঁসাতে চাইছে।