মজলিশপুরে মোটরসাইকেল নিয়ে দ্বন্দ্বে হত্যার অভিযোগ!

সাফায়াত ইসলাম (নূরুল) ।।

কিশোরগঞ্জের নিকলী উপজেলার কারপাশা ইউনিয়নের মজলিশপুর গ্রামে প্রতিপক্ষের আঘাতে গতকাল শুক্রবার (২৪ মে ২০১৯) আল আমিন (৩৯) নামে একজন খুন হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় গত রাতে নিকলী থানায় একটি হত্যার অভিযোগ দায়ের করেছেন নিহতের বাবা কফিল উদ্দিন।

নিহত আল আমিন মজলিশপুর বড়বাড়ী পাথারিয়া গ্রামের কফিল উদ্দিনের ছেলে। অভিযুক্তরা হলেন- একই গ্রামের মোঃ সৈয়দ হোসেন, তার ছেলে তনয় মিয়া, হৃদয় মিয়া, সৈয়দ হোসেনের ভাই মর্তুজা, শুনু মিয়া এবং মহির উদ্দিন।

নিহতের পরিবার ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, আল আমিনের ধার করা মোটরসাইকেল ব্যবহার করে সড়ক দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে শুক্রবার বিকালে মজলিশপুর সিএনজি স্টেশন মোড়ে আল আমিন এবং অভিযুক্ত মোঃ সৈয়দ হোসেন, তার ছেলে তনয় মিয়া, হৃদয় মিয়া, সৈয়দ হোসেনের ভাই মর্তুজা, শুনু মিয়া, মহির উদ্দিনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে প্রতিপক্ষের আঘাতে আল আমিন আহত হলে প্রথমে মোটরসাইকেল এবং পরে অটোরিকশা করে নিয়ে যাওয়ার পথে তিনি জ্ঞান হারান। অজ্ঞান অবস্থায় নিকলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত আল আমিনফাইল ফটো

নিহত আল আমিনের পিতা কফিল উদ্দিন শনিবার জানান, তার ছেলেকে যারা হত্যা করেছে তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করছি।

অভিযুক্ত সৈয়দ হোসেনের স্ত্রী সালমা আক্তার জানান, মোটরসাইকেল ভাঙ্গার বিষয়টি আগেই স্থানীয়ভাবে মীমাংসা হয়ে যায়। শুক্রবার আল আমিন তার বাড়ি থেকে মোটরসাইকেলটি জোরপূর্বক নিয়ে যেতে আসেন। এর প্রেক্ষিতে দুই পক্ষের মধ্যে বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে কিছু হাতাহাতি হয়।

নিকলী থানার ওসি মোঃ নাছির উদ্দিন ভূঁইয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি আরো বলেন, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর প্রকৃত ঘটনা নিশ্চিত হওয়া যাবে।