কটিয়াদীতে ৪০ দিনের সন্তান রেখে দেবরের সাথে পালালো ভাবি

আমাদের নিকলী ডেস্ক ।।

সন্তান প্রসবের ৪০ দিনের মাথায় শিশুসন্তানকে ফেলে দেবরের সাথে পালিয়ে গেছে এক কিশোরী মা। গত ৩০ জুন কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলার মুমুরদিয়া ইউনিয়নের দক্ষিণ মুমুরদিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটলেও সম্প্রতি তা জানাজানি হয়েছে। আর এরপর থেকেই এমন ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

জেবিন আক্তার মনি (১৬) নামে গৃহবধূ কটিয়াদী উপজেলার মুমুরদিয়া ইউনিয়নের উত্তর মুমুরদিয়া গ্রামের হালিম হুসাইনের স্ত্রী ও দক্ষিণ মুমুরদিয়া গ্রামের মো. জাহাঙ্গীর আলম মেম্বারের মেয়ে।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, দেড় বছর আগে মুমুরদিয়া ইউনিয়নের হাজেরা সুলতান উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী জেবিন আক্তার মনির সঙ্গে পারিবারিকভাবে উত্তর মুমুরদিয়া গ্রামের হালিম হুসাইনের বিয়ে হয়।

জেবিনের বাবা জাহাঙ্গীর আলম জানান, বিয়ের পর মেয়ের দাম্পত্য জীবন সুখেই কাটছিল। বিয়ের ১৪ মাসের মাথায় জেবিন মেয়েসন্তান জন্ম দেন। সন্তানের নাম রাখা হয় নওশীন আক্তার মীম। জেবিন পালিয়ে যাওয়ায় আমরা সমাজে মুখ দেখাতে পারছি না।

জেবিনের দাদা আবদুল আলী ভূঁইয়া জানান, গত রোববার সকালে ৪০ দিন বয়সের সন্তানকে তার মায়ের কাছে রেখে স্কুলে যাওয়ার কথা বলে বের হয় জেবিন। পরে উত্তর মুমুরদিয়া গ্রামের মো. আসাব উদ্দিনের ছেলে চাচাতো দেবর আরাফাতের সাথে পালিয়ে যায় সে।

তিনি আরও বলেন, মোবাইল ফোনে কথা হলে সে আরাফাতের সথে চলে গেছে বলে জানায়। মায়ের দুধের জন্য শিশুটি এখন সারাক্ষণ কান্নাকাটি করে। কৌটার দুধ খাইয়ে তার জীবন বাঁচানোর চেষ্টা করছি।

কটিয়াদী মডেল থানা পুলিশের ওসি আবু শামা মোহাম্মদ ইকবাল হায়াত জানান, গৃহবধূর বাবা মো. জাহাঙ্গীর আলম তার মেয়েকে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়ার বিষয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। বিষয়টি তদন্তাধীন রয়েছে।

ছবিটি প্রতীকী

সূত্র : জাগো নিউজ

Similar Posts

error: Content is protected !!