পেছাচ্ছে ৪১তম বিসিএস বিজ্ঞপ্তি, পেছাচ্ছে ৪০তম ফলও

আমাদের নিকলী ডেস্ক ।।

আগস্টে হচ্ছে না ৪১তম বিসিএস পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি। পেছাচ্ছে ৪০ বিসিএস প্রিলিমিনারি ফলের তারিখও। চলতি সপ্তাহেই এই ফল প্রকাশের গুঞ্জন উঠেছিল। তবে বিষয় দুটো নিয়ে প্রস্তুতি এগিয়ে চলছে। বর্তমানে চারটি বিসিএস ছাড়াও মাধ্যমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার জন্য ব্যস্ত সময় পার করছে কমিশন। আর এ কারণেই এই বিজ্ঞপ্তি ও ফল প্রকোশে কিছুটা বিলম্ব হচ্ছে বলে জানা গেছে।

জানতে চাইলে পিএসসির চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ সাদিক বলেন, আগস্ট নয়, সেপ্টেম্বরের মধ্যে ৪১তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের প্রস্তুতি এগিয়ে চলেছে। তবে অল্প সময়ের মধ্যে ৪০তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষার ফল প্রকাশের চিন্তা-ভাবনা করছি। মাসখানেক আগে অবশ্য পিএসসির চেয়ারম্যান গণমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন, ৪১তম বিসিএসের চাহিদা পাওয়া গেছে। আশা করছি, জুলাইয়ের শেষে নতুবা আগস্টের মধ্যেই ৪১তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করতে পারব।

তথ্যমতে, গত ৯ মে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে পিএসসির কাছে ২ হাজার ১৩৫টি শূন্য পদের সংখ্যা জানিয়ে ৪১তম বিসিএসের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের অনুরোধ জানায়। ৪১তম বিসিএসে প্রশাসন ক্যাডারে ৩২৩ জন, পররাষ্ট্র ক্যাডারে ২৫ জন এবং পুলিশ ক্যাডারে সহকারী পুলিশ সুপার পদে ১০০ জন নিয়োগ পাবেন।

এদিকে ৪১তম বিসিএসে সুখবর ছাড়াও ৩৭তম বিসিএস থেকে রেকর্ডসংখ্যক পরীক্ষার্থী চাকরি পাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন পিএসসি চেয়ারম্যান। এই বিসিএসে উত্তীর্ণ সবাই সরকারি চাকরির জন্য সুপারিশপ্রাপ্ত হবেন- এমনটাই জানিয়েছেন পিএসসির চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ সাদিক। তিনি বলেন, ৩৭তম বিসিএস থেকে উত্তীর্ণদের মধ্যে থেকে দ্বিতীয় শ্রেণির নন-ক্যাডারের তালিকা দ্রুত প্রকাশ করা হবে। ৩৭তম বিসিএসে উত্তীর্ণ সবাই চাকরির জন্য সুপারিশপ্রাপ্ত হবেন। ক্যাডার, নন-ক্যাডার প্রথম শ্রেণির পর এবার দ্রুত নন-ক্যাডার দ্বিতীয় শ্রেণির ফল প্রকাশ করতে যাচ্ছে সরকারি কর্মকমিশন (পিএসসি)।

উল্লেখ্য, ৩৭তম বিসিএসে ৩ হাজার ৪৫৪ জনকে নন–ক্যাডারে অপেক্ষমাণ তালিকায় রাখা হয়েছে। এর আগে গত ১৩ মার্চ ৩৭তম বিসিএসের নন–ক্যাডার থেকে প্রথম শ্রেণির (নবম গ্রেড) পদে সুপারিশের ফলাফল প্রকাশ করে পিএসসি। ওই সুপারিশে ৫৭৮ জনকে প্রথম শ্রেণিতে নিয়োগের সুপারিশ করে পিএসসি। পিএসসি এখন প্রথম শ্রেণির আরেকটি তালিকা প্রকাশের প্রস্তুতি নিচ্ছে। এরপর দ্বিতীয় শ্রেণির তালিকা প্রকাশ করবে।

এদিকে, চলতি মাসের ২৯ জুলাই থেকে শুরু হচ্ছে ৩৮তম বিসিএসের মৌখিক পরীক্ষা। সোমবারই ৩৮ম বিসিএসের মৌখিক পরীক্ষার সূচি পিএসসির ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে। সাধারণ ক্যাডারের এই মৌখিক পরীক্ষা চলবে আগামী ৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। এর আগে গত ১ জুলাই ৩৮তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়। এতে মৌখিক পরীক্ষার জন্য উত্তীর্ণ হন ৯ হাজার ৮৬২ জন। তবে এবার রেজিস্ট্রেশনের সিরিয়াল অনুযায়ী নয়, লটারির মাধ্যমে পরীক্ষার সময় নির্ধারণ করেছে সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানটি। ২০১৭ সালের ২৯ ডিসেম্বর ৩৮তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ২০১৮ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি ৩৮তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করে পিএসসি। এতে ১৬ হাজার ২৮৬ জন উত্তীর্ণ হন। গত বছরের ৮ আগস্ট এই বিসিএসের লিখিত পরীক্ষা শুরু হয়। প্রশাসন ক্যাডারে ৩০০, পুলিশ ক্যাডারের ১০০টিসহ জনপ্রশাসনে ২ হাজার ২৪ জন ক্যাডার কর্মকর্তাকে ৩৮তম বিসিএসের মাধ্যমে নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছিল। এতে আরো ১৩৬টি ক্যাডার পদ যুক্ত করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

চাকরি পাবেন ৩৭তম বিসিএস নন-ক্যাডারের সবাই : ৩৭তম বিসিএস পরীক্ষায় ক্যাডার পদে সুপারিশপ্রাপ্ত নন এমন প্রার্থীদের মধ্য থেকে নন-ক্যাডার দ্বিতীয় শ্রেণির তালিকা দ্রুত প্রকাশ করতে যাচ্ছে কমিশন। এর আগে চলতি বছরের ১৩ মার্চ সর্বোচ্চসংখ্যক ৫৭৮ জনকে নিয়োগের জন্য সুপারিশ করেছিল সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানটি। এ ছাড়া গত ৪ জুলাই আরো ৯৯ জনকে প্রথম শ্রেণির পদে নিয়োগের সুপারিশ করা হয়। প্রথম শ্রেণি শেষে এবার ঈদের আগে একটি দ্বিতীয় শ্রেণির তালিকা প্রকাশ করা হবে।

ঈদের পরে বা ৩৮তম বিসিএসের চূড়ান্ত ফল প্রকাশের আগ পর্যন্ত আরেকটি তালিকা প্রকাশ করবে পিএসসি। ফলে অপেক্ষামাণ সবাই চাকরি পাচ্ছেন বলে জানিয়েছে পিএসসি। ২০১৮ সালের ১২ জুন ৩৭তম বিসিএসের চূড়ান্ত ফল প্রকাশ করা হয়। এতে ১ হাজার ৩১৪ জন ক্যাডার পান। বাকি ৩ হাজার ৪৫৪ জনকে নন-ক্যাডারে অপেক্ষমাণ রাখা হয়। তার মধ্যে ইতিমধ্যে ৬৭৭ জন চাকরি পেয়েছেন।

 

সূত্র : TheDailyCampus