কিশোরগঞ্জে কর্মচারীদের ধর্মঘটে পৌর নাগরিক সেবা বন্ধ

আমাদের নিকলী ডেস্ক ।।

কিশোরগঞ্জের সব পৌরসভার প্রধান ফটকে তালা ঝুলিয়ে ধর্মঘট পালন করেছেন পৌর কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা। রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা, পেনশন ও জনপ্রতিনিধিদের সম্মানী ভাতা দেয়ার দাবিতে পৌরসভায় সব ধরনের নাগরিক সেবা বন্ধ করে দিয়েছেন তারা।

রোববার (১৪ জুলাই) থেকে শুরু হওয়া এ ধর্মঘটে এরই মধ্যে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে পানি সরবরাহ, সড়ক বাতি ও সব নাগরিক সেবা। টানা চার দিন জেলার কোনো পৌর শহর থেকেই ময়লা আবর্জনা সরানো হচ্ছে না। ফলে জেলার আটটি পৌরসভায় রাস্তার পাশে ময়লা-আবর্জনা জমে দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়েছে। দেখা দিয়েছে জনদুর্ভোগ।

বাংলাদেশ পৌরসভা সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের ব্যানারে পৌর কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা অনির্দিষ্টকালের অবস্থান কর্মসূচিতে অংশ নেওয়ায় পৌরসভাগুলোতে অচলাবস্থা সৃষ্টি হয়েছে।

এদিকে প্রতিদিন সকালে পৌরসভার প্রধান ফটকে তালা দেখে নাগরিক সেবা না পেয়েই পৌরবাসীরা ফিরে যাচ্ছে।

কিশোরগঞ্জ পৌর কর্মকর্তা ও কর্মচারী অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আনোয়ার হোসেন ভূঁঞা সংবাদমাধ্যমকে জানান, কেন্দ্রীয় কমিটির ডাকে পূর্বঘোষণা অনুযায়ী গত ১৪ জুলাই থেকে দেশের সব পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীরা ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবে অনির্দিষ্টকালের জন্য অবস্থান কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছেন। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত এ কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে।

কিশোরগঞ্জ পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের নগুয়ার বাসিন্দা অ্যাডভোকেট আল আমিন সংবাদমাধ্যমকে বলেন, পৌরসভা থেকে পৌরবাসী সেবা পাচ্ছেন না। এতে করে নাগরিকদের দুর্ভোগ বেড়েছে।

সূত্র : বাংলানিউজ২৪