ধামইরহাট বিএনপি আহ্বায়ক কমিটি নিয়ে দ্বন্দ্বে অফিসে তালা

ধামইরহাট (নওগাঁ) প্রতিনিধি ।।

নওগাঁর ধামইরহাটে বিএনপির আহ্বায়ক কমিটি বিতর্কিত হওয়ায় সকল কার্যক্রম স্থগিত ঘোষণা করেছে উপজেলা বিএনপি। দলীয় অফিসে তালা ঝুলিয়ে দিয়ে অবস্থান নিয়েছে নেতা-কর্মীরা। পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কাউন্সিলর রেজুয়ান হোসেন অভিযোগ করেন, গত ১৮ জুলাই নওগাঁ জেলা থেকে যে ধামইরহাট থানা ও পৌর বিএনপির আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে সেখানে ত্যাগী ও মাঠের রাজনীতি করা নেতাদের বাদ দিয়ে, কাঠমিস্ত্রি, রাজমিস্ত্রী, ভ্যানচালক, ৩০ ডিসেম্বর জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সরাসরি বিএনপির বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়া, মিছিল মিটিং-এ থাকেন না এমন ব্যক্তিদের নিয়ে এবং
যুবদলের লোকজনকে আহ্বায়ক পদ দিয়ে কমিটি তৈরি করা হয়েছে।

যারা কোনদিন মূল দল বিএনপিই করেননি এক ব্যক্তির নাম দুই কমিটিতে আবার এক ব্যক্তির নাম দুইবার একই কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত করায় ও প্রকৃত নেতাদের যারা, সরকারের মিথ্যা রাজনৈতিক মামলার শিকার হয়েছেন তাদের নাম বাদ পড়ায় এবং দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনে যারা কখনই অংশগ্রহণ করেননি তাদেরকে কমিটির গুরুত্বপূর্ণ পদ দেয়ার প্রতিবাদে আজকে আমরা কমিটির বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছি। কমিটি বাতিল না করা পর্যন্ত দলীয় কার্যালয় অনির্দিষ্টকালের জন্য তালাবদ্ধ থাকবে এবং কেউ অফিসে ঢুকতে পারবে না।

উপজেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আবু বক্কর জানান, আমরা ৮টি ইউনিয়নে সমন্বয় করে জেলায় তথ্য জমা দেয়ার পর জেলা আহ্বায়ক কমিটি প্রকৃতদের মূল্যায়ন না করে যারা আওয়ামী লীগের নির্বাচন করেছে, যারা বিএনপিতে কখনই সক্রিয় নয় এবং কেন্দ্রের সিদ্ধান্ত অমান্য করে নির্বাচনে অংশ নিয়েছে, তাদেরকে দিয়ে ধামইরহাট থানা বিএনপির কমিটি করা হয়েছে। আর আমরা যারা আওয়ামী সরকারের মিথ্যা মামলায় জর্জরিত তাদের কোন মূল্যায়ন করা হয়নি। তাই আমরা এই কমিটিকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেছি এবং অচিরেই আমরা সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে পদত্যাগ ঘোষণা করব।

নতুনভাবে ঘোষিত পৌর কমিটির আহ্বায়ক আজমল হোসেন চৌধুরী শাহান বলেন, বর্তমান পৌর কমিটির সম্পাদক বিনা কাউন্সিলে, আসলে আমরা পকেট কমিটির বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছি জন্যই তারা এখন আবল-তাবল বকছে। আমরা ঘোষিত উপজেলা ও পৌর কমিটি বৈধ।

উপজেলা বিএনপির নতুন কমিটির আহ্বায়ক মনোয়ার কায়সার বুলবুল বলেন, জেলা বিএনপি মাঠ পর্যায়ে নেতা-কর্মীদের তথ্য নিয়ে এই আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করেছেন এখানে আমাদের কারও কিছু বলার নেই।