কুলিয়ারচরে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে ৬ বছরের শিশু হত্যা

শেখ মোবারক হোসাইন সাদী, বিশেষ প্রতিনিধি ।।

কুলিয়ারচরে পাওনা টাকা চাওয়ার জের ধরে হাতুড়িপেটা করে ৬ বছরের শিশুকে হত্যা করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলা মাসকান্দি গ্রামের আনোয়ারুল হক তার পাওনা টাকা চাইতে একই গ্রামের হবিব মিয়ার কাছে গেলে দু’জনের মধ্যে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে হবিব ঘর থেকে হাতুড়ি এনে আনোয়ারুল হককে আঘাত করতে যায়। এ সময় আনোয়ারুল পালিয়ে গেলে রাস্তায় খেলা করতে থাকা আনোয়ারুল হকের ছেলে নিলয়কে (৬) রাস্তায় পেয়ে হবিব মিয়া নির্দয়ভাবে হাতুড়িপেটা করে গুরুতর আহত করলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কুলিয়ারচর পৌর এলাকার ৯নং ওয়ার্ডের মাসকান্দি গ্রামের মৃত আব্দুল জলিলের (জিল্লু) ছেলে হবিব মিয়া সোমবার দুপুরে পারিবারিক কলহের জের ধরে তার স্ত্রীর সঙ্গে ঝগড়া শুরু করে। একপর্যায়ে হবিব উত্তেজিত হয়ে স্ত্রী পুতুলকে মারপিট করতে থাকে। এ সময় তার স্ত্রী পুতুল (৪৫) স্বামীর হাত থেকে আত্মরক্ষার জন্য প্রথমে দৌড়ে নিজ ঘরের বাথরুমে লুকিয়ে আত্মরক্ষার চেষ্টা করে। কিন্তু তার পরেও হবিব তার স্ত্রীকে মারার জন্য খুঁজতে থাকলে কোনো উপায় না পেয়ে দৌড়ে গিয়ে পার্শ্ববর্তী মো. জাহাঙ্গীর মোল্লার বাড়িতে আশ্রয় নেয়।

হবিব সেখানেও স্ত্রীকে মারপিট করার জন্য গেলে ওই বাড়িতে থাকা মহিলাদের সহযোগিতায় স্ত্রী পুতুল কোন রকমে রক্ষা পায়। এ পর্যায়ে একই গ্রামের আনোয়ারুল হক তার পাওনা টাকা চাইতে হবিব মিয়ার কাছে গেলে তাদের দুইজনের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে হবিব ঘর থেকে হাতুড়ি এনে আনোয়ারুল হককে আঘাত করতে যায়। এ সময় আনোয়ারুল পালিয়ে গেলে রাস্তায় খেলা করতে থাকা আনোয়ারুল হকের ছেলে নিলয়কে (৬) হবিব মিয়া নির্দয়ভাবে মাথায় ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে হাতুড়ি দিয়ে প্রচণ্ডভাবে আঘাত করে।

এ সময় আলমগীর মোল্লার স্ত্রী আখি বেগম (৪৫) হবিবের হাত থেকে শিশু নিলয়কে বাঁচাতে গেলে হবিব তাকেও আঘাত করে পালিয়ে যায়। এ সময় শিশু নিলয়ের চিৎকার শুনে এলাকাবাসী ঘটনাস্থলে এসে রক্তাক্ত ও গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে প্রথমে কুলিয়ারচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। নিলয়ের অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই দিন রাত সাড়ে ১০টায় নিলয়ের মৃত্যু হয়। এই ঘটনায় নিলয়ের পিতা মো. আনুয়ারুল হক বাদী হয়ে কুলিয়ারচর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। নিলয়ের মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে ওই দিন রাত সাড়ে ১১টায় কুলিয়ারচর থানা পুলিশ ঘাতক হবিব মিয়ার স্ত্রী পুতুল বেগমকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে এবং গতকাল (মঙ্গলবার) দুপুরে কুলিয়ারচর থানা পুলিশ পুতুলকে ওই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে কিশোরগঞ্জ কোর্টে প্রেরণ করে।

 

তথ্যসূত্র : মানবজমিন

Similar Posts

error: Content is protected !!