ধামইরহাটে ১০ টাকায় শিক্ষার্থীদের দুপুরের খাবার দিচ্ছে আদর্শ হোটেল

ধামইরহাট (নওগাঁ) প্রতিনিধি ।।

নওগাঁর ধামইরহাটে মাত্র ১০ টাকায় পেট ভরে শিক্ষার্থীদের দুপুরের খাবার দিচ্ছেন একজন হোটেল ব্যবসায়ী। সে খাবারে থাকছে ভাত, ডাল, ডিম, ছোট মাছসহ সবজি।

জানা গেছে, চকময়রাম গ্রামের পিতা মৃত অছিমদ্দিনের ছেলে আদর্শ হোটেল ব্যবসায়ী মো. মতিয়ার রহমান গত ৪ মাস থেকে মাত্র ১০ টাকা মূল্যে দুপুরের খাবার বিক্রয় করেন। এতে চকময়রাম সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রায় ১৫০ থেকে ২শ’ শিক্ষার্থী প্রতিদিন খাবার ক্রয় করে থাকেন।

মাত্র ১০ টাকার দুপুরের প্যাকেজ খাবারের সম্পর্কে জানতে চাইলে হোটেল ব্যবসায়ী চকময়রাম গ্রামের মতিয়ার জানান, গ্রামের অধিকাংশ বাচ্চারা রোজ সকালে বাসা থেকে স্কুলের উদ্দেশ্যে আসে। এই গরমের মধ্যে বাসা থেকে খাবার সবার পক্ষে আনা সম্ভব হয় না এবং অনেক বাচ্চা প্রায় ১০-১২ কিলোমিটার দূরের পথ থেকে রোজ বিদ্যালয়ে আসে। আবার বেশি টাকা দিয়ে দুপুরে ভাত কিনে খাবার সামর্থ্যও অনেকের নেই। তারা টিফিনের সময় আশপাশের দোকান থেকে তৈলাক্ত খাবার কিনে খায় এটা স্বাস্থ্যের জন্যও ক্ষতিকর। এর বদলে দুপুরে এক প্লেট ভাত কিনে খেতে পারলে তাদের শরীরটা ভালো থাকে। এমন চিন্তা থেকে আমাদের ১০ টাকার প্যাকেজ খাবার যেটা ৪ মাস থেকে চলছে।

তিনি আরো বলেন, আমার আদর্শ হোটেলে পর্যাপ্ত পরিমাণে বসার জায়গা নেই। আর মাত্র ১ ঘণ্টার টিফিনের সময়। এত অল্প সময়ে এতজন শিক্ষার্থীকে বসার জায়গা না দিতে পারাতে অনেক ছাত্র দাঁড়িয়ে থেকে দুপুরের খাবার খায়।

এ বিষয়ে ৮ম শ্রেণীর ছাত্র মো. আহাদ, মুশফিকুর রহমান, শিহাব বলেন, আমরা রোজ সকালে বাসা থেকে স্কুলের উদ্দেশ্যে আসি ঠিকমত সকালের খাবারও বাসা থেকে খেয়ে আসতে পারি না। আর আদর্শ হোটেলের মাত্র ১০ টাকার প্যাকেজটি আমাদের জন্য খুবই ভালো এবং এখানকার খাবারের গুণগত মান ভাল ও রুচিসম্মত।

এ বিষয়ে চকময়রাম সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এস.এম খেলাল ই রব্বানী বলেন, দ্রব্যমূল্যের উর্দ্ধগতির বাজারে হোটেল ব্যবসায়ী মতিয়ার রহমান ১০ টাকায় খাবার দিয়ে যে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন, তা অবিস্মরণীয়।