“বিদায় আন্তর্জাতিক ক্রিকেট!”

আমাদের নিকলী ডেস্ক ।।

দক্ষিণ আফ্রিকার জার্সি গায়ে আর দেখা যাবে না হাশিম আমলাকে। বৃহস্পতিবার (০৮ আগস্ট) আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সব ধরনের ফরম্যাট থেকে বিদায় নিয়েছেন তিনি। দিন কয়েক আগে টেস্টকে বিদায় জানান আমলার প্রোটিয়া সতীর্থ ডেল স্টেইন। এবার সেই পথে হাঁটলেন এই ৩৬ বছর বয়সী ব্যাটসম্যান। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানালেও ঘরোয়া ক্রিকেট চালিয়ে যাবেন তিনি।

অবসর নেওয়ার সময় আমলা বলেন, “সর্ব প্রথমে, সব কৃতিত্ব সর্বশক্তিমানের, যিনি আমাকে প্রোটিয়াদের জার্সিতে খেলার সুযোগ করে দিয়েছেন। ক্রিকেট আমাকে অনেক কিছু শিখিয়েছে। আমি অনেক বন্ধু পেয়েছি। তাদের সঙ্গে ভালবাসা ও ভ্রাতৃত্ব ভাগাভাগি করেছি। আমাকে সমর্থন দেওয়ার জন্য আমার পিতামাতাকে ধন্যবাদ জানাতে চাই।”

১৫ বছরের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ক্যারিয়ারে আমলার প্রথম অভিষেক হয়েছিল টেস্ট ফরম্যাটে। ২০০৪ সালের নভেম্বরে ভারতের বিপক্ষে সাদা পোশাকে খেলতে নামেন তিনি। তবে রঙ্গিন পোশাক গায়ে তুলতে আরও বেশ সময় পার হয়ে যায় তার। ২০০৮ সালে ওয়ানডে ও পরের বছর টি-টোয়েন্টিতে অভিষেক ঘটে। আর সর্বশেষ ওয়ানডে বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচই তার শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ হয়ে থাকলো।

লঙ্কানদের বিপক্ষে সেই ম্যাচে ৮০ রানের দুর্দান্ত একটি ইনিংস খেলেন। যদিও পুরো আসরেই ছিলেন ব্যর্থ। বিশ্বকাপে প্রোটিয়া স্কোয়াডে থাকবেন কিনা এমন শঙ্কায় থাকা এই ডানহাতি ৭ ম্যাচে মাত্র ২০৩ রান করেন। তবে ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলির বেশ কয়েকটি হাজারের রেকর্ড ভেঙে দেওয়া আমলা ৫০ ওভারের ফরম্যাটে ১৮১ ম্যাচে ২৭টি সেঞ্চুরি ও ৩৯টি হাফসেঞ্চুরিতে ৪৯.৪৬ গড়ে ৮১১৩ রান করেছেন।

তবে রঙ্গিন পোশাক থেকেও আমলা বেশি সাফল্য পেয়েছেন টেস্ট ফরম্যাটে। ১২৪ টেস্টে ২৮টি সেঞ্চুরিতে ও ৪৬.৬৪ গড়ে করেছেন ৯২৮২ রান। দক্ষিণ আফ্রিকার দ্বিতীয় সর্বোচ্চ টেস্ট রান সংগ্রাহক হিসেবে শেষ করেছেন তিনি। শীর্ষে রয়েছেন জ্যাক ক্যালিস।

ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত ফরম্যাট টি-টোয়েন্টিতেও সফল ছিলেন আমলা। ৪৪ ম্যাচে ৩৩.৬০ গড় ও ১৩২.০৫ স্ট্রাইক রেটে ৮টি হাফসেঞ্চুরিসহ করেছেন ১২৭৭ রান।

সূত্র : বাংলানিউজ২৪