চবি’র পরিবেশনায় বিশেষ নাটকে নিকলীর কৃতিমুখ সাদী

বিশেষ প্রতিনিধি ।।

“ওয়ান বাংলাদেশ” আয়োজিত, স্বনামধন্য নাট্যকার মান্নান হীরা রচিত ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) নাট্যকলা বিভাগের প্রভাষক সুবীর মহাজনের নির্দেশনায়, চবি নাট্যকলা বিভাগের পরিবেশনায় “ইনডেমনিটি একটি কালো আইন” শীর্ষক নাটক ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ বিকাল সাড়ে ৫টায় চবি উন্মুক্ত মঞ্চে মঞ্চস্থ হয়। নাটকের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য (দায়িত্বপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চবি সংগীত বিভাগের সভাপতি প্রফেসর সুকান্ত ভট্টাচার্য, নাট্যকলা বিভাগের সভাপতি মো. শামীম হাসান, চবি প্রক্টর (ভারপ্রাপ্ত) প্রণব মিত্র চৌধুরী এবং ওয়ান বাংলাদেশ চট্টগ্রাম শাখার সমন্বয়ক চবি সহকারী প্রক্টর রেজাউল করিম।

প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার তাঁর বক্তব্যের শুরুতে নাটকের কলাকুশলীসহ আয়োজকবৃন্দ এবং উপস্থিত সকলকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানান। তিনি বলেন, ১৯৭৫-এর ১৫ আগস্ট হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি স্বাধীন বাংলাদেশের মহান স্থপতি রাজনীতির মহাকবি বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তাঁর পরিবারের সকল সদস্যকে নির্মমভাবে যারা হত্যা করেছিল সেইসব ঘৃণিত হত্যাকারীদের বিচার যাতে কখনো না হয় সেই জন্য তৎকালীন স্বাধীনতাবিরোধী ষড়যন্ত্রকারী সরকার ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ নামে কালো আইন জারি করেছিল।

তিনি আরো বলেন, ষড়যন্ত্রকারীদের এই ঘৃণ্য কার্যক্রম সফল হয়নি। বঙ্গবন্ধু তনয়া আধুনিক বাংলাদেশের রূপকার মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাষ্ট্রক্ষমতায় আসীন হয়ে এই ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ বাতিল করে জাতিকে কলংকমুক্ত করেন। তিনি মহান মুক্তিযুদ্ধ এবং স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের সঠিক ইতিহাসভিত্তিক অধিকতর নাটক নির্মাণের জন্য নির্মাতাদের প্রতি আহ্বান জানান। প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার বর্তমান প্রজন্মের সন্তানদের কাছে বাংলাদেশের সঠিক ইতিহাস ছড়িয়ে দিতে এ ধরনের নাটক পরিবেশনা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে মর্মে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

অনুষ্ঠানে চবি সহকারী প্রক্টর মোহাম্মদ এয়াকুব, মোহাম্মদ রিফাত রহমান, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ চবি শাখার সভাপতি রেজাউল হক রুবেল ও সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন টিপুসহ চবি বিভিন্ন বিভাগের সম্মানিত শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং বিপুলসংখ্যক শিক্ষার্থী উপস্থিত থেকে নাটক উপভোগ করেন। অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন অর্পিতা ভট্টাচার্য।

উল্লেখ্য, নাটকটির একটি বিশেষ চরিত্রে অভিনয় করেছেন নিকলীর কৃতিমুখ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় নাট্যকলা অনুষদের ১৫-১৬ সেশন ৭ম ব্যাচের শিক্ষার্থী শেখ মোবারক হোসাইন সাদী