শিক্ষক আহসান উল্লাহ’র প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী কাল

বিশেষ প্রতিনিধি ।।

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত প্রধান শিক্ষক শাহ মোহাম্মদ আহসান উল্লাহ’র প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী কাল রোববার (৬ অক্টোবর)। গত বছর ৬ অক্টোবর কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলার নোয়াবাড়িয়া এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় ৫৫ বছর বয়সে তাঁর মৃত্যু হয়।

তিনি ছিলেন জেলার নিকলী উপজেলার দামপাড়া ইউনিয়নের এ.বি নূরজাহান হোসেন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। তিনি গল্প লিখতেন। এছাড়া সাহিত্যের প্রায় সব ক্ষেত্রে তার হাত ছিলো। অসম্ভব পড়ুয়া এই শিক্ষক ভালো বক্তা হিসেবেও পরিচিত ছিলেন। শিক্ষার্থীদের মধ্যে পড়ার অভ্যাস গড়ে তুলতে নিবেদিত ছিলেন। জড়িত ছিলেন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে। তিনি এ.বি নূরজাহান হোসেন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা প্রধান শিক্ষক। নিজের চেষ্টায় স্কুলটিকে উপজেলার সেরা স্কুলে পরিণত করেন।

তাঁর প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে গ্রামের বাড়ি ইন্দাচুল্লী এবং নিকলীতে দোয়ার আয়োজন করা হয়েছে। বাবার জন্য দোয়া চেয়েছেন তাঁর দুই ছেলে শাহ মো. মেহেদী হাসান এবং শাহ মো. মাইনুল হাসান।

গত বছর কিশোরগঞ্জ থেকে নিকলী যাওয়ার পথে এক শিশুকে বাঁচাতে গিয়ে এই শিক্ষককে বহন করা সিএনজি অটোরিকশাটি উল্টে যায়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে জেলার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানে তাঁর মৃত্যু হয়। দুর্ঘটনায় তিনি বুকে ও মাথায় আঘাত পেয়েছিলেন।