ধামইরহাটে গভীর নলকূপের ড্রেনে যুবকের লাশ উদ্ধার

ধামইরহাট (নওগাঁ) প্রতিনিধি ।।

নওগাঁর ধামইরহাটে ৪ দিনের ব্যবধানে আবারও প্রান্তিক এলাকায় এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। ১৫ অক্টোবর সকাল বেলায় উপজেলার আগ্রাদ্বিগুন ইউনিয়নের সাঙ্গাইল দিঘী গ্রাম এলাকার মাঠে গভীর নলকূপের ড্রেনে এক যুবকের লাশ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা থানায় খবর দিলে থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে স্থানীয়দের মাঝে লাশ সনাক্তের বিষয়ে সহযোগিতা চান।

এ সময় পার্শ্ববর্তী পত্নীতলার উপজেলার কৃষ্ণপুর গ্রামের মৃত ওসমান আলী বড় ছেলে জয়নাল আবেদিন লাশের কাছে উপস্থিত হয়ে জানান, নিহত ব্যক্তি তার আপন ছোট ভাই। তার নাম তোফাজ্জল হোসেন (৩০)।

ধামইরহাট থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মাহবুব আলম জানান, মৃত ব্যক্তির গায়ে আঘাতের বিশেষ কোন চিহ্ন নেই, তবে এই মৃত্যুর কারণ জানতে ধামইরহাট থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, মৃত তোফাজ্জল হোসেনের বিরুদ্ধে ২০১৭ সালে পত্নীতলা থানায় জমি-জমা সংক্রান্ত একটি মামলার সে আসামি ছিলেন। পূর্বশত্রুতার কারণে কেউ তাকে অন্যত্র মেরে ধামইরহাট থানা এলাকায় ফেলে যেতে পারে বলে থানা পুলিশ ধারণা করছে।

মৃতের বড় ভাই জয়নাল আবেদিন জানান, আমার মৃত ভাইয়ের স্ত্রীর সাথে কথা বলে জেনেছি, প্রতিবেশী একজন আমার ছোট ভাই তোফাজ্জলকে গতকাল সন্ধ্যায় বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। আর রাত শেষে আজকে ভাইয়ের মৃতদেহ পেয়েছি। আমরা ঘটনা বিস্তারিত জেনে ময়নাতদন্ত রিপোর্টের ভিত্তিতে মামলাসহ পরবর্তী আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করবো।

উল্লেখ্য, গত ১০ অক্টোবর উপজেলার আলমপুর ইউনিয়নের বীরগ্রাম বড় মোল্লাপাড়া গ্রামের আদিবাসী রুপলাল হেমরমকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে খুন করে টুটিকাটা ব্রিজে ফেলে যায় দুর্বৃত্তরা, ৪ দিনের ব্যবধানে আবারও আগ্রাদ্বিগুন ইউনিয়নে তোফাজ্জল হোসেনের মৃত দেহ উদ্ধার করল পুলিশ।

Similar Posts

error: Content is protected !!