হাওরপাড়ের সংস্কৃতি : পর্ব ১

শেখ মোবারক হোসাইন সাদী ।।

মানুষ কতটুকুই বা জানে। হয়তো অনেকটাই জানে। তবুও মানুষ জানার জন্য ছুটে চলেছে এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে। তাই কৌতুহলী মানুষ আবিষ্কার করেছিল আজকের আমেরিকা। মানুষ জানতে চায়, চিনতে চায়, খুঁজে বেড়ায় তার হারিয়ে যাওয়া ইতিহাস ও সংস্কৃতি। বাঙালি হিসাবে এবং নাট্যকলার ছাত্র হিসাবে আমার জানার ইচ্ছে ছিল হাওরের সংস্কৃতি ও তার ইতিহাস।

নিকলী, মিঠামইন, ইটনা, অষ্টগ্রাম, নেত্রকোনা, হবিগঞ্জ, বানিয়াচং, আজমিরিগঞ্জ, সিলেট, সুনামগঞ্জের তাহিরপুর ও টাংগুয়ার হাওরে ঘুরে চিন্তার সীমাবদ্ধতায় খুঁজে বের করার চেষ্টা করেছি হাওরের জীবন যাপন ও জীবিকা। খুঁজে বেরিয়েছি বাঙালির হাজার বছরের নিজস্ব শিল্প-সংস্কৃতি।

তার এক বিশাল অংশ জুড়ে রয়েছে হাওরপাড়ের মানুষের সুখ-দুঃখের গল্প, আনন্দ-বেদনা ও জীবনযাপনের বর্ণিল উৎসব আয়োজন। বাউল গান, সারিগান, দেহতত্ত্ব, শরিয়তি, মারফতি, মুর্শিদি, মরমী, লোকগীতি, ভাটিয়ালী, পালাগান, ঘেটু গানসহ বিভিন্নধর্মী গানের বিশাল সম্ভার এই হাওরাঞ্চলে। ভাষার মধ্যেও যে বৈচিত্র্য আছে তার স্বাদও আলাদা।

ভাটি এলাকার সংস্কৃতির অন্বেষণে ছুটে চলার অভিজ্ঞতা পাঠকদের সাথে ভাগাভাগির উদ্দেশে “আমাদের নিকলী ডটকম”-এ ধারাবাহিকভাবে প্রকাশের চেষ্টা করবো।

 

লেখক : শিক্ষার্থী, নাট্যকলা বিভাগ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়
অতিথি শিক্ষক, জারইতলা স্কুল অ্যান্ড কলেজ
বিশেষ প্রতিনিধি, আমাদের নিকলী ডটকম