রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে নিজেই বানান কার্যকরী ড্রিংক

আমাদের নিকলী ডেস্ক ।।

করোনাভাইরাসের হাত থেকে বাঁচতে নিজেকে সুস্থ রাখার বিকল্প নেই। আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা একটু দুর্বল হলেই এটি সহজে আক্রমণ করতে পারবে। ভেষজ উপাদানের সাহায্যে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা উন্নত করা যেতে পারে। এটি শরীরকে করোনা সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করতে সাহায্য করবে।

আমরা যখন সুস্থ থাকি তখন আমাদের শরীর নিজেই নিজেই নিজেকে ছোট-খাটো সংক্রমণ থেকে রক্ষা করে। করোনাভাইরাসও এক ধরনের সংক্রমণ। যদি আমরা আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর দিকে মনোযোগ দেই তবে খুব সহজেই করোনাভাইরাসসহ অন্যান্য ভাইরাস ও অসুখের বিরুদ্ধে লড়াই করা সম্ভব হবে।

নিয়মিত শরীরচর্চা করার অভ্যাস করুন। ভারি শরীরচর্চার প্রয়োজন নেই, বাড়িতে থেকেই ফ্রি হ্যান্ড এক্সারসাইজের অভ্যাস গড়ে তুলুন। এটি আপনাকে সুস্থ ও সচল রাখতে সাহায্য করবে। এছাড়া নিয়মিত পান করুন উষ্ণ গরম পানি ও ভেষজ চা। পান করতে পারেন হলুদ দেয়া দুধ বা গোল্ডেন মিল্ক। এটি আমাদের শরীরের জন্য বেশ উপকারী।

যদি আপনার কাশির সমস্যা থাকে তবে লবঙ্গ মিশ্রিত মধু খেতে হবে, দিনে অন্তত ২ থেকে ৩ বার। প্রতিদিনের খাবারে হলুদ, জিরা, ধনিয়া এবং রসুন ব্যবহার করুন। এই পরিচিত মশলাগুলো বাড়িয়ে তুলবে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা।

স্বাস্থ্যকর জীবনযাপন ও খাবারের অভ্যাস আপনাকে দূরে রাখবে সব রকম অসুখ-বিসুখ থেকে। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে পান করতে পারেন এই ইমিউনিটি ড্রিংক। চলুন জেনে নেয়া যাক, এই ইমিউনিটি ড্রিংক কীভাবে তৈরি করবেন-

উপকরণ
গুড়/মধু, দারুচিনি, গোলমরিচ, কিশমিশ, তুলসি পাতা, শুকনো আদা, লেবু।

ইমিউনিটি ড্রিঙ্ক তৈরির পদ্ধতি
একটি পাত্রে পানি গরম করুন। এরপর এতে লেবু ছাড়া অন্যান্য উপাদানগুলো পরিমাণমতো দিয়ে দিন। এটি মিষ্টি করতে চিনির পরিবর্তে গুড় ব্যবহার করা ভালো। অল্প আঁচে ফুটিয়ে নিন।

এবার এটি একটি কাপে নিয়ে সামান্য লেবুর রস মিশিয়ে নিন। স্বাদ অনুযায়ী গুড় এবং লেবু ব্যবহার করুন। তৈরি হয়ে গেল ইমিউনিটি ড্রিংক। আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা শক্তিশালী করতে, সকাল এবং সন্ধ্যায় এটি পান করুন। পাশাপাশি মেনে চলুন সব রকম স্বাস্থ্যবিধি।

Similar Posts

error: Content is protected !!