করোনা সনদ জালিয়াতি করে আটকে গেলেন শাজাহান খানের মেয়ে!

আমাদের নিকলী ডেস্ক ।।

করোনা সনদ (কোভিড-১৯) জালিয়াতি করে নেগেটিভ রিপোর্ট নিয়ে ধরা খেলেন সাবেক নৌ-পরিবহন মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শাজাহান খানের মেয়ে ঐশী খান। দেশ ছাড়ার আগে ইমিগ্রেশনে অনলাইন চেকে তার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট পাওয়া যায়। রোববার (২৬ জুলাই) সকালে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশনে বিষয়টি ধরা পড়লে ঐশীকে লন্ডন যেতে দেওয়া হয়নি।

বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশন ডিপার্টমেন্ট সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

সূত্র জানায়, রোববার (২৬ জুলাই) সকালে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিজি-০০১ ফ্লাইটে লন্ডন যাওয়ার জন্য হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যান ঐশী। ইমিগ্রেশনে তার সঙ্গে থাকা করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট চেক করেন ইমিগ্রেশন কর্মকর্তা। ইমিগ্রেশন পুলিশ অনলাইনে করোনা সার্টিফিকেট চেক করলে সেটি পজিটিভ দেখায়। সঙ্গে সঙ্গেই তাকে বিমানবন্দর থেকে ফেরত পাঠানো হয়।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, ইমিগ্রেশনে করোনা সনদ চেককালে পজিটিভ ধরা পড়ায় বিমানের লন্ডন ফ্লাইটে একজন যাত্রীকে যেতে দেওয়া হয়নি।

তিনি একজন সাবেক মন্ত্রীর মেয়ে কিনা জানতে চাইলে ওই কর্মকর্তা বলেন, তার পরিচয় কী, সেটা আমরা জানি না। তিনি বিমানের যাত্রী ছিলেন, এটুকু আমরা জানি। ইমিগ্রেশন অথরিটি করোনা সনদ চেক করলে অনলাইনে রিপোর্ট পজিটিভ দেখায়, এজন্য ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ ওই যাত্রীকে লন্ডন যেতে দেয়নি।

শিডিউল ফ্লাইটটি রোববার দুপুর ১২টায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে লন্ডনের উদ্দেশ্য ছেড়ে গেছে বলেও জানান এই কর্মকর্তা।

এ বিষয়ে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন এএইচএম তৌহিদ উল আহসানের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।

 

সূত্র : বাংলানিউজ২৪