ব্রাজিলের আত্মবিশ্বাস ফেরাচ্ছেন দুঙ্গা : আলবার্তো পেরেইরা

নিজেদের মাটিতে বিশ্বকাপ। ভক্ত-অনুরাগীদের প্রত্যাশাও আকাশছোয়া। কোয়ার্টার ফাইনাল পর্যন্ত সঠিকভাবে এগুলেও সেমিতেই পথ হারিয়ে ফেলে ব্রাজিল। জার্মানির কাছে বিধ্ধস্ত হয়ে টুর্নামেন্ট থেকেই বিদায় নেয় তারা। লজ্জাজনক পরাজয়ের সেই স্মৃতি এখনও তরতাজা। তবে সেই স্মৃতি ভুলে গিয়ে নতুন কোচ দুঙ্গার অধীনে ঘুড়ে দাড়ানোর মিশনটা দুর্দান্ত করেছে পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা।
বিশ্বকাপের পর খেলা সবগুলো ম্যাচেই দুর্দান্ত জয় পেয়েছে নেইমার-লুইজরা। আর সাবেক কোচ কার্লোস দুঙ্গা ফিরে আসাতেই দলের আত্মবিশ্বাস বেড়েছে বলে মনে করেন ব্রাজিলের সাবেক কোচ কালোর্স আলবার্তো পেরেইরা। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘বিশ্বকাপের পর যে অবস্থায় ছিল ব্রাজিল, সেখান থেকে দারুণভাবে ঘুড়ে দাড়িয়েছে ব্রাজিল। এর পিছনে বড় অবদান দুঙ্গার। দলের মধ্যে আত্মবিশ্বাস ফিরিয়ে এনেছে সে।’
২০১৪ বিশ্বকাপের শুরু থেকেই নিজেদের ছন্দে খেলতে না পারলেও, ভালোভাবেই সেমিফাইনালে নাম লেখায় ব্রাজিল। তবে সেমিতে গিয়ে চরম হতাশায় ডুব দেয় তারা। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন জার্মানির কাছে ৭-১ গোলে ম্যাচ হেরে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নেয় স্বাগতিকরা। শুধু তাই নয়। তৃতীয় স্থান নির্ধারনী ম্যাচেও নিজেদের অসহায়ত্ব প্রদর্শন করে অস্কার -হাল্করা। হল্যান্ডের কাছে ৩-০ গোলে হার বরণ করে নেয় ব্রাজিল। ফলে চতুর্থ স্থান নিয়ে বিশ্বকাপের বিশতম আসর শেষ করে পাঁচবারের বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল। ব্রাজিলের এমন পারফরমেন্সে হতাশ ফুটবল ভক্তরা। হতাশ ব্রাজিল ফুটবল ফেডারেশনও।
তাই বিশ্বকাপ শেষে খুব দ্রুতই ব্রাজিলের কোচ লুইস ফিলিপ সোলারিকে সরিয়ে দেন। সাবেক কোচ দুঙ্গাকে দায়িত্ব দেয় ব্রাজিল ফুটবল ফেডারেশন। আর দায়িত্ব নিয়েই দলের চিত্র পাল্টে দিয়েছেন দুঙ্গা। তার অধীনে এখন পর্যন্ত চারটি আর্ন্তজাতিক প্রীতি ম্যাচ খেলেছে ব্রাজিল। চারটি ম্যাচের সবকটিতেই দুর্দান্ত জয়ের স্বাদ নিয়ে মাঠ ছেড়েছে তারা। দলের এমন পারফরমেন্সে মুগ্ধ ব্রাজিলের সাবেক কোচ আলবার্তো পেরেইরা। আর দুঙ্গার কারনেই হারানো আত্মবিশ্বাস ফিরে পেয়েছে ব্রাজিল বলে মনে করেন পেরেইরা, ‘চরম হতাশা নিয়ে এবারের বিশ্বকাপ শেষ করেছে ব্রাজিল। তবে বিশ্বকাপের পর যে অবস্থায় ছিল, সেখান থেকে দারুনভাবে ঘুড়ে দাড়িয়েছে ব্রাজিল। এর পিছনে বড় অবদান দুঙ্গার। দলের মধ্যে আত্মবিশ্বাস ফিরিয়ে এনেছে সে। প্রীতি ম্যাচের চারটি জয়, তেমনই ইঙ্গিত দিচ্ছে। তার ও দলের পারফরমেন্সেও আমি মুগ্ধ।’

আলবার্তো পেরেইরা

২০০৬ থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত ব্রাজিল ফুটবল দলের দায়িত্ব পালন করেছিলেন কার্লোস দুঙ্গা। কিন্তু চার বছর আগে দক্ষিণ আফ্রিকা বিশ্বকাপে তার অধীণেই বাজে পারফরমেন্স উপহার দেয় ব্রাজিল। যে কারণে কোচের পদ থেকে বরখাস্ত করে কতৃপক্ষ। আর দ্বিতীয় দফায় চলতি বছরের ২২ জুলাই আবারও ব্রাজিলের দায়িত্ব পান তিনি। তার কোচিং কৌশলে কলম্বিয়া, ইকুয়েডর, আর্জেন্টিনা ও জাপানের বিপক্ষে জয় পেয়েছে ব্রাজিল। দলের মধ্যে দারুন এক আবহাওয়া তৈরি করেছেন দুঙ্গা।
এছাড়া দলের কৌশলে চোখ জুড়ানো সৌন্দর্যও দেখতে পেরেছেন পেরেইরা। এ বিষয়ে তার অভিমত হল, ‘জয়, জয় এবং জয়ই শুধু গুরুত্বপূর্ন নয়। আত্মবিশ্বাস ফিরিয়ে আনার পাশাপাশি দলের কৌশলের সৌন্দর্যতাও পাল্টিয়ে দিয়েছেন তিনি। তার কৌশলের সাথে খুব দ্রতই মানিয়েও নিয়েছে দলের খেলোয়াড়রা তা বুঝা যাচ্ছে। ডিফেন্স, মধ্যমাঠ ও আক্রমনভাগের সবাই ভালো পারফর্ম করেছে প্রীতি ম্যাচগুলোতে। আশা করছি ভবিষ্যতে সাফল্যের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখবে দুঙ্গাবাহিনী।’ চলতি বছর আরও দুটি প্রীতি ম্যাচ খেলবে ব্রাজিল। আগামী ১২ নবেম্বর তাদের প্রতিপক্ষ তুরস্ক। এরপর ১৮ নবেম্বর অস্ট্রিয়ার মুখোমুখি হবে কাকা-নেইমাররা। ল্যাটিন আমেরিকার শক্তিশালী দল কলম্বিয়া-আর্জেন্টিনার বিপক্ষে জয় পাওয়ায় তুরস্ক-অস্ট্রিয়ার বিপক্ষেও দারুণ আত্ববিশ্বাসী কার্লোস দুঙ্গা।