বিবারের জ্বালায় অতিষ্ঠ প্রতিবেশীরা

বেভারলি হিলসের বাড়িতে একদল বন্ধুবান্ধব নিয়ে বুনো পার্টিতে মেতে হই-হুল্লোড় করায় প্রতিবেশীদের অভিযোগে সম্প্রতি পপ সংগীত তারকা জাস্টিন বিবারের বাসায় হানা দিয়েছে পুলিশ। বাসায় পুলিশ যাওয়ার পর ৪০ জন আমন্ত্রিত অতিথির মধ্য থেকে ৩০ জনকে চলে যেতে বলেন বিবার। সেলেনা গোমেজের সঙ্গে বিবারের প্রেম সদ্য ভেঙে গেলেও, আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে সেলেনাও ছিলেন।
গত আগস্ট মাসেই প্রতিবেশীদের অভিযোগ পেয়ে বিবারের বেভারলি হিলসের বাড়িতে হানা দিয়েছিল পুলিশ। কারণ সপ্তাহের প্রায় প্রতিদিনই বন্ধুবান্ধবদের নিয়ে বাড়ির টেরাসে বুনো পার্টিতে মেতে উঠতেন তিনি। বিবারের অত্যাচার থেকে রেহাই পেতে তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ নিয়ে পুলিশের দ্বারস্থ হন তাঁর প্রতিবেশীরা। এ ছাড়া কেবল জুলাই মাসেই এক সপ্তাহের মধ্যে ছয়-ছয়বার বিবারের বাড়িতে গিয়ে পার্টি বন্ধ করতে বলে পুলিশ।
এত কিছুর পরও সম্প্রতি আবারও নিজের বাসায় পার্টির আয়োজন করেন বিবার। উচ্চ শব্দ করার অভিযোগ পেয়ে গত বুধবার স্থানীয় সময় রাত সোয়া ১১টার দিকে বিবারের বাসার কাছে গিয়ে হাজির হয় পুলিশ। কিন্তু তাঁরা ঘটনাস্থলে গিয়ে কোনো উচ্চ শব্দ না শুনে সেখান থেকে চলে যায়। এক ঘণ্টা পর আবার অভিযোগ পেয়ে বিবারের বাড়িতে হানা দেয় তারা। এক খবরে এমনটিই জানিয়েছে ইঅনলাইন।
দ্বিতীয় দফায় হানা দিয়ে বিবারের বাড়ির ছাদে ৪০ জনকে একসঙ্গে দেখতে পায় পুলিশ। তাঁরা সবাই একে অন্যের সঙ্গে কথাবার্তা বললেও কোনো উচ্চ শব্দ বা চিৎকার-চেঁচামেচি করছিলেন না। এ জন্য বিবারকে কিছু না বলে কেবল সতর্ক করে দিয়েই সেখান থেকে চলে যায় পুলিশ। অবশ্য পুলিশের উপস্থিতির কারণে বিবার নিজ থেকেই আমন্ত্রিত বেশির ভাগ অতিথিকে চলে যেতে বলেন। বিবারের অনুরোধে একে একে সবাই চলে যেতে থাকেন। শেষতক ১০ জনকে নিয়ে বেশ সতর্কতার সঙ্গে পার্টি চালিয়ে যান বিবার।