‘আলাপী’ হওয়ার ১১টি বাধা

প্রথম দেখাতেই ‘সহজ’ হতে সবাই পারেন না। আপনিও সেই দলে পড়েন নাকি! তাহলেই তো সাড়ে সব্বোনাশ! কী দেখে বুঝবেন!

১. সহজ হবেন কী করে! একসঙ্গে অনেকের সঙ্গে আপনাকে মুখোমুখি হতে হবে…এই চিন্তাতেই তো আপনি জেরবার সারাক্ষণ!

২. সবাই শুধু আপনার পছন্দের বিষয় বা কাজের কথা-ই বলবেন….এমন আকাশ-কুসুম কল্পনা!

৩. হায় রে! হাসিটাও মন থেকে আসে না! আপনি হাসছেন, কিন্তু মনে হচ্ছে যেন ‘টেকনিক্যালি’।আপনাকে হাসানো হচ্ছে!।

৪. প্রতিটি কথার শেষে কপাল বা মাথা চুলকানো! এ কি বদ-অভ্যাস!

৫. উৎসব, অনুষ্ঠান এমনকি একঘর লোকের মাঝেো কানে ‘ছিপি’ ইয়ে হেডফোন গোঁজা! এমন করলে তো কথা বলা বা শোনা দুটোই শেষ!

৬. নিজের মানসিকতার সঙ্গে খাপে খাপ না মিললেই কাম সারছে! বিশেষ করে অতিরিক্ত বর্হিমুখী মানুষের মেশা আর উঁচু পাহাড় ডিঙোনো – সমান কষ্টের কাজ আপনার কাছে!

৭. ভাবনা আর আচরণে এতটাই ফারাক যে লোকে সেটা না বুঝে আপনাকে ‘সিনিক’ বা অকৃতজ্ঞ ভেবে বসেন!

৮. ছুটির দিনে কোথায় সবার সঙ্গে কাটাবেন! তা না, একাই বেরিয়ে পড়লেন এমন জায়গায় যেখানে মানুষের আনাগোণা প্রায় হাতে গোণা!

৯. এমন মানুষদের সঙ্গে বন্ধুত্ব পছন্দ, যারা আপনার মতো চট করে অন্যদের সঙ্গে মিশতে পারেন না!

১০.অল্প সময়ের জন্য হলে ঠিক আছে। কিন্তু বেশিক্ষণ কারও সঙ্গে কথা বলতে হলেই আপনি বাচাল’!

১১. সব সময় টেনশনে টানটান! তাই নতুন কোনো প্ল্যান-এর কথা উঠলেই মনে মনে সৃষ্টিকর্তাকে ডাকা শুরু! যাতে পরিকল্পনা শুরুর আগেই ভেস্তে যায়!– ওয়েবসাইট।