অফিস ফাঁকি দিতে ১০ বাহানা

চাকরি কথাটা শুনলেই চাকুরিজীবীদের চোখে পানি আসে৷ পেটের দায়ের চাকরি করতে যাওয়া লোকেদের নিষ্ঠুর বস কিছুতেই ছুটি দিতে যায় না যে৷ তবে ছুটি নেওয়ার প্রয়োজন অনেকক্ষেত্রেই পড়ে৷ কিন্তু বসের মুখভারের কারণেই শ্রমিক রূপি চাকুরিজীবীদের কারণে অকারণে মিথ্যা কথা বলতে হয়৷ কিন্তু সব মিথ্যেই যে তালগোল পাকিয়ে এক হয়ে যায়৷ আপনাদের জন রইল কিছু টিপস৷ এগুলি একবার করে কাজে লাগিয়ে দেখতে পারেন৷

•    পেট খারাপের বাহানা অনেক করেছেন এবার এবিষয়ে একটু সিরিয়াস হোন৷ বস কে বলুন সারাদিন আপনি ঘর আর বাথরুম করছেন৷ একথা আপনার বসও অস্বীকার করতে পারবেন না যে, মুঘল সম্রাট থেকে শুরু করে আপনার বসেরও ওইটির সমস্যা রয়েছে৷ এই কারণে অফিসে ছুটির প্রযোজন পড়েল এই উপায় আপনাকে সাহায্য করতে পারেন৷

•    ধরুন, সকাল থেকে অফিস করে হাঁফিয়ে উঠেছেন৷ বিকালটা ছুটি চাই৷ আর দেরি না করে মা, বাবা নইলে বউকে অসুস্থ করে তুলুন৷ বসকে গিয়ে বলুন হঠাৎ শরীর খারাপের কথা সঙ্গে বলতে ভুলবেন না যে আপনি না গেলেই নয়৷ তবে কায়দা করে মায়ের কথা যদি বলতে পারেন তবে আপনাকে আর পায় কে৷

•    প্রিয় বন্ধু বা বান্ধবীর বিয়ের উপলক্ষ্যেও ছুটি নিতে পারেন৷ বসকে একটু বাড়িয়েই বলুন যে বন্ধু আমার কত দিনের পুরোনো৷ এর সঙ্গে কতকি না করেছি৷ সঙ্গে ভুয়ো বন্ধু সাজিয়ে এনে বসের সামনে দাঁড় করিয়ে দিন৷ ব্যস দেখবেন আপনার অন্তত তিন দিনের ছুটি পাকা হয়ে যাবে৷

•    সাবধানতা অবলম্বন না করলেই দুর্ঘটনা৷ যেকোনো মুহুর্তে কোন না কোন দুর্ঘটনা ঘটতেই পারে আপনার সঙ্গে৷ যদি সত্যি না ঘটেও, বানিয়ে বলতে দোষ কোথায়? বস কে ফোন করে বলে ফেলুন ছোট্ট মিথ্যে কথা৷ তারপর দুদিন মনের আনন্দে ছুটি কাটিয়ে মাথায় একটা ব্যান্ডেড আর হাতে বা পায়ে ক্রপ মুড়ে চলে যান অফিস৷ দেখবেন সকলেই সহানুভূতি আপনার সঙ্গে রয়েছে৷
office_faki
•    অফিসে এমন কোনো কাজের বাহানা দিয়ে দিন যার সঙ্গে সরকার, কোট বা পুলিশের সম্পর্ক রয়েছে৷ পুলিশ-কোর্ট কাছারির কথায় সকলেই একটু ভয় পান৷ জামিন, হাজিরা বা ব্যাঙ্কের নোটিশের কথা শুনে পৃথিবীর কোনো বস নেই যে আপনাকে আটকাবে৷ আইন ব্যবস্থা পালনে অফিসের বসদেরও অনেক বড় যোগদান রয়েছে৷

•    অফিসের মহিলা কর্মচারীদের জন্যে তো আলাদা বেশ কিছু সুবিধা রয়েছে৷ বস কে বলুন আজ আপনার হবু শ্বশুরবাড়ি থেকে আপনাকে দেখতে আসছে৷ যদিও বিবাহিতরা এবিষয়ে একটি মার খেতে পারেন৷ তবে কুছ পরোয়া নেই, ভাই বা বোনের শ্বশুরবাড়ির লোক আসছে বলে আপনি একদিন ছুটির মজা নিতেই পারেন৷

•    ছুটি পেতে চাইলে অফিসে জানিয়ে দিন আপনা কে ছাড়া আপনার বাড়ির লোকেরা অচল৷ ডাক্তার বদ্যি সবকিছু আপনাকেই সামলাতে হয়৷ কাউকে হাসপাতালে নিয়ে যেতে হবে বা কোনো আত্মীয়কে ট্রেনে তুলে দিতে হবে বলেও ছুটি নেয়া যেতে পারে৷

•    বাচ্চার স্কুলে ফাংশন বা বউকে নিয়ে ডাক্তারের কাছে যেতে হবে এই সব বললে আপনাকে নেহাতই ঘরোয়া জীব বলে মনে হতে পারে৷ কিন্তু যে বসের নিজের পরিবার রয়েছে তিনি আপনার এই বাহানা গুলিকেকষ্ট হিসেবে দেখবেন আর আপনাকে ছুটি দেবেনই৷

•    বসের উপর যদি একবার ইমোশনাল অত্যাচার করতে পারেন তবে তো কথাই নেই৷ দূর সম্পর্কের এক আত্মীয়া মারা গেছেন বলেও কাজ চালাতে পারেন৷ বসকে বলুন তিনি আপনার মায়ের খুব কাছের লোক ছিলেন৷ মাকে সঙ্গে নিয়ে আপনাকে সেখানে যেতেই হবে৷ কিন্তু বার বার একই আত্মীয়াকে মেরে ফেলবেন না যেন৷

তবে মনে রাখা দরকার এসব ফাঁকিবাজি শেষ পর্য ন্ত আপনার জন্য আসলে শুভ হবে না। কারণ এটা সবারই জানা যে মিথ্যা একদিন ধরা পড়বেই। আর তখন হয়তো চাকরি থেকে স্থায়ী ছুটি মিলতে পারে।