নিকলীতে নদীদখলের পায়তারা

জোতদার ও লিজ গ্রহীতাদের দির্ঘদিনের চলমান দন্দ্বের জের ধরে শুক্রবার আবুল কাশেম (৪৮) নামে এক ব্যবসায়ীর হাত-পা ভেঙ্গে দিয়েছে প্রতিপক্ষের লোকজন। আবুল কাশেমকে গুরুতর আহত অবস্থায় কিশোরগঞ্জ আধূনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। জোতদার ও লীজ গ্রহিতা উভয়ে ক্ষমতাসীন দলের লোক বলে জানা যায়।


প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার রোদার নদীর দখল নিয়ে দুই যুগেরও বেশী সময় নিয়ে সরকারের নিকট থেকে লিজ গ্রহিতা এবং জোত বলে নদীটির মালিক দাবীদারদের মধ্যে দন্দ্ব চলে আসছিলো। প্রতিবছরের মতো এবারও বেশ কয়েকদিন যাবৎ নদীটির দখল নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছিলো। এরই জের ধরে বৃহষ্পতিবার দিবাগত মধ্যরাতে আবুল কাশেম পূড্ডা বাজারস্থ তার স’মিলে হিসাব নিকাশে ব্যস্ত অবস্থায় লিজ গ্রহিতা পক্ষের ছাদল মিয়ার নেতৃত্বে আক্কাছ মিয়া, হেলিম মিয়া. শান্তু মিয়া সহ ১০-১২জনের একটি দল দেশীয় অস্ত্র সস্ত্র নিয়ে আক্রমন করে। এ সময় অনুনয়-বিনয় করলে আবুল কাশেমের সাথে থাকা আলী আকবর ও রাসেল মিয়াকে ছেড়ে দেয় আক্রমণকারীরা। পরে আবুল কাশেমকে লোহার রড, দেশীয় অস্ত্রের বাট দিয়ে আঘাত করে ডান হাত ও বাম পা ভেঙ্গে দেয়। খবর পেয়ে নিকলী থানা পুলিশ গুরতর আহত আবুল কাশেমকে উদ্ধার করে। নিকলী থানার ইনচার্জ একেএম মাহাবুব আলম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, খবর পাওয়ার পর ঘটনাস্থল হতে আহত আবুল কাশেমকে উদ্ধার করে এবং এলাকার শান্তি শৃঙ্খলার জন্য পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

 

জিয়াউল হক খান (টনি)

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!