উড়ন্ত রেস্তোরাঁয় ঝুলন্ত অবস্থায় ডিনার!

আমাদের নিকলী ডেস্ক ।।

শহর কলকাতায় কিছুদিনের মধ্যেই খুলে যাবে এক গগনচুম্বী রেস্তোরাঁ। তবে তার আগে বেঙ্গালুরুতে চালু হয়েছে এক ঝুলন্ত রেস্তোরাঁ। ১৬০ ফুট উচ্চতায় ঝুলন্ত অবস্থায় রয়েছে চেয়ার-টেবিল। সেখানেই পরিবেশিত হবে খাবার কিংবা মকটেল।

৩৬০ ডিগ্রি ঘুরতে ঘুরতে আপনি দেখতে পারবেন বেঙ্গালুরু শহরের দুর্দান্ত টপ ভিউ। ক্রেনে করে আপনাকে তুলে নিয়ে ডেকের মতো ওই রেস্তরাঁয় বসিয়ে দেয়া হবে। তারপর? তারপরে ঘুরতে থাকবে টেবিল-সহ গোটা রেস্তরাঁর অংশ, যাতে প্রত্যেকেই ভালভাবে আকাশের মধ্যে ভেসে থাকাটা উপভোগ করতে পারেন।

এই রেস্তোরাঁয় রয়েছে ২২টি চেয়ার। ক্রেনে করে তুলে নিয়ে ওই রেস্তরাঁয় বসিয়ে দেয়া হবে। প্রথমটায় নিচের দিকে তাকালে মাথাটা ঘুরে যাবে ঠিকই। কিন্তু কিছুক্ষণের মধ্যেই উপভোগ করতে শুরু করবেন। মেনুতে থাকছে- গ্রিলড চিকেন, হার্ব রাইস, মকটেল, ফ্রুট স্যালাড, ক্রকেটস ইত্যাদি। রয়েছে বিভিন্ন রকমের স্ন্যাকসও।

তবে পকেটটা একটু ভারি হওয়া চাই। মকটেল সেশনের খরচ জনপ্রতি প্রায় ৪ হাজার টাকা। আর ডিনারের খরচ প্রায় সাত হাজার টাকা।

প্রায় ৪০টি দেশে রয়েছে এই ধরনের স্কাই ডাইনিংয়ের ব্যবস্থা। সিটবেল্ট পরেই খাবার খেতে হয় খদ্দেরদের। তিনটি বেল্ট রয়েছে, এগুলি চেয়ারের সঙ্গে বাঁধাও থাকবে। ধাতব তার দিয়ে ঝোলানো রয়েছে ওই রেস্তোরাঁ। সেফটি চেক করিয়েই চালু করা হয়েছে ওই রেস্তোরাঁ।

জার্মানির এক বিশেষজ্ঞ দল এই রেস্তরাঁর নিরাপত্তার বিষয়ে নিশ্চিত করেছেন। ক্রেনে করে উপরে যাওয়ার আগে একটি সেফটি ভিডিওতে খদ্দেরদের গোটা ব্যবস্থা, খাবার অর্ডার দেয়া ইত্যাদি বুঝিয়ে দেয়ার ব্যবস্থাও রয়েছে। এমারজেন্সি ল্যান্ডিংয়ের ব্যবস্থাও রয়েছে। সেক্ষেত্রে নামিয়ে আনা হতে পারে রেস্তোরাঁর অতিথি, চেয়ার টেবিল-সহ খাবার-দাবার। নিচেও রয়েছে খাবারের ব্যবস্থা। মকটেল সেশন চলে আধ ঘণ্টা ধরে আর ডিনার হয় ঘণ্টাখানেকের।

সূত্র : কলকাতা ২৪x৭, ২৫ অক্টোবর ২০১৮

Similar Posts

error: Content is protected !!